ধান কাটতে গিয়ে নিখোঁজের তিন দিন পর যুবকের মরদেহ উদ্ধার

জেলা প্রতিনিধি,লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় ভারতীয় সীমান্তবর্তী খুটামারা নদীতে ধান কাটতে গিয়ে নিখোঁজ নুর আলম নামে যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। শুক্রবার (২০ মে) সকাল ১০টায় উপজেলার পূর্ব ফকির পাড়া গ্রামের ২ নং ওয়ার্ডে নিখোঁজের তিন দিন পর ওই নদীতেই মরদেহ ভেসে উঠলে স্থানীয়দের খবরে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে।
নিহত নুর আলম (৩০) উপজেলার পূর্ব ফকির পাড়া গ্রামের ২নং ওয়ার্ডের নিজাম উদ্দিনের ছেলে। নিহত নুর আলম দুই সন্তানের জনক।
পরিবার ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে,গত বুধবার ভারতীয় শীতলকুচি থানার খোঁচাবাড়ি সীমান্তবর্তী বাংলাদেশ অংশে খুটামারা নদীতে পানির নিচ থেকে দুই ভাই নুর আলম (৩০) ও নুরুজ্জামান (৩৫) মিলে পাকা ধান কাটতে যায়। এ সময় ছোট ভাই ছোট ভাই নুর আলম পানিতে নিখোঁজ হয়। তিন দিন ধরে খোজাখুজি করলেও তার হদিস পাওয়া যায়নাই। আজ শুক্রবার সকালে খুটামারা নদীতে তার মরদেহ ভেসে উঠে। পরে স্থানীয়রা পুলিশকে খবর দেন। থানা পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করেন।
নিহতের বাবা নিজাম উদ্দিন জানান, দুই ছেলে ধান কাটতে গিয়ে এক ছেলে নিখোঁজ হয়। পরে  তিনদিন পর ছোট ছেলের লাশ পাই। আমার কোন অভিযোগ নাই।আমার ছেলে দীর্ঘদিন ধরে  সে মৃগী রোগে ভুগছিলো।
ফকিরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফজলার রহমান খোকন বলেন, ঘটনাস্থলে এসে দেখেছি ওই ছেলে দীর্ঘদিন ধরে মৃগী রোগে আক্রান্ত ছিলো। ধান কাটতে গিয়ে নদীর পানিতে তার মৃত্যু হয়।
হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি তদন্ত) রফিকুল ইসলাম বলেন, মরদেহ উদ্ধার করে লালমনিরহাট মর্গে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত প্রতিবেদন পেলে প্রকৃত কারণ জানা যাবে।