বগুড়ায় ব্রেড-বিস্কুট এন্ড কনফেকশনারী মালিক সমিতির মূল্য নির্ধারনী সাধারণ সভা

ব্যবসার প্রথম শর্তই হচ্ছে সততা ও নিষ্ঠার সহিত পরিচালনা করা। দ্রব্যমূল্য উর্দ্ধগতির কারণে ভোক্তাদের নিকট যে পণ্য বিক্রয় করা হচ্ছে তা ভোক্তাদের ক্রয় ক্ষমতার বাহিরে চলে যাচ্ছে। ফলশ্রুতিতে দেখা যাচ্ছে ভোক্তাগণ পণ্য ক্রয়ে হিমশিম খাচ্ছে। এ বিষয়টিকে মাথায় নিয়ে বগুড়া জেলা ব্রেড-বিস্কুট এন্ড কনফেকশনারী মালিক সমিতি ভোক্তাদের ক্রয় সামর্থ্য ও সন্তুষ্টির লক্ষ্যে মূল্য নির্ধারনী সাধারণ সভা শনিবার শহরের দত্তবাড়ী কমিউনিটি সেন্টারে আয়োজন করে। উক্ত সভায় সভাপতিত্ব করেন সংগঠনের জেলার সভাপতি ও আকবরিয়া লিমিটেডের চেয়ারম্যান হাসান আলী আলাল।

প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বিবিসিপিএস উত্তরবঙ্গ পরিষদের প্রধান উপদেষ্টা অধ্যাপিকা ড. হোসনে আরা বেগম। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, আমাদের ঐক্যের প্রয়োজন। আমরা যদি সবাই একত্রিত থাকি তাহলে অনেক অন্যায়ের প্রতিবাদ করতে পারবো। ঐক্যের মাধ্যমে আমাদের ন্যায্য দাবি আদায় করতে হবে। শুধু কথা বললেই হবে না কাজ করতে হবে। আমাদের যে কোন সমস্যার কথা জেলার অভিভাবক জেলা প্রশাসককে জানাতে হবে। তাঁর মাধ্যমে দেশের সর্বোচ্চ পর্যায়ে পৌঁছাতে হবে।

তিনি আরো বলেন, আমাদের সংগঠনকে আরো শক্তিাশালী করে ন্যায্য দাবী আদায়ে বলিষ্ঠ ভূমিকা রাখতে হবে। তৃনমূল পর্যায় হতে উচ্চ পর্যায় পর্যন্ত সংগঠনটি শক্তিশালী হলে যে কোন সমস্য সমাধান করা সহজতর হবে। বেকারী শিল্প রক্ষায় ঐক্যের বিকল্প নেই।

বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিবিসিপিএস উত্তরবঙ্গ পরিষদের সভাপতি মাকসুদুল আলম পাটোয়ারী, সাধারণ সম্পাদক সেকেন্দার আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক নাজির শামীম। এসময় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের বগুড়া জেলার সহ-সভাপতি বায়েজিদ শেখ, সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট ইমদাদুল হক ইমদাদ, উপদেষ্টা শ্রী তপন কুমার চক্রবর্ত্তী, লিয়াকত আলী, সাংগঠনিক সম্পাদক শহিদুল ইসলাম, আলী আজম, মেরাজ মিয়া, সাইদুর রহমান, রেজাউল করিম, জুলফিকার আলী, আব্দুর রাজ্জাক, বিপ্লবসহ প্রমুখ।
সভায় সিদ্ধান্তক্রমে বেকারীর কাঁচামাল অস্বাভাবিক বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে পাইকারী বেকারী পণ্যের মূল্য বৃদ্ধি করা হয়েছে। যা আগামী শনিবার থেকে কার্যকর হবে।