বগুড়ায় বিজয় টিভির সাংবাদিক স্বরনের ছোট ভাইয়ের মৃত্যু

বিজয় টেলিভিশনের বগুড়া প্রতিনিধি ও বগুড়া লাইভের সম্পাদক তানজিজুল ইসলাম স্বরন এর একমাত্র ছোট ভাই মালয়েশিয়া প্রবাসী এস এম রাফিউল ইসলাম রাফি ইন্তেকাল করেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাইহি রাজিউন)। গত বুধবার ২২ জুন মালয়েশিয়া কুয়ালালামপুরে তার বাসভবনে ঘুমে থাকাকালীন সময়ে হৃৎপিণ্ডে রক্ত সরবরাহকারী ধমনীর দেয়ালে প্লাক তৈরির (হার্ট ব্লক) কারণে তিনি মৃত্যুবরণ করেন। মৃত্যুকালে তার বয়স ছিল মাত্র ২৭ বছর।
নেকটার বগুড়ার সাবেক কর্মকর্তা মরহুম সামছুল ইসলাম এর ছোট ছেলে রাফি গত ৫ বছর যাবত মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে বসবাস করতেন এবং পড়াশুনা শেষে সর্বশেষ মার্সিডিস বেন্জ গাড়ির কোম্পানিতে রিলেশনশিপ অফিসার হিসেবে কর্মরত ছিলেন। অল্প বসয়েই শিক্ষা ও সংস্কৃতি অঙ্গণে কাজের পাশাপাশি রাফির বিচরণ ছিল প্রশংসনীয়। যার দরুণ মালয়েশিয়াতেও রাফি জাতীয় পর্যায়ের বিভিন্ন পুরস্কারও অর্জন করেছেন। শুধু তাই নয় রাফির একাধিক ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা যায়, অল্প বয়স থেকেই রাফি বগুড়াতে পড়াশোনার পাশাপাশি বঙ্গবন্ধুর আদর্শে ছাত্র রাজনীতি থেকে শুরু করে সমাজসেবামূলক নানা কাজে তিনি সম্পৃক্ত ছিলেন এবং ক্রীড়াঙ্গণে তার বিচরণ ছিল চোখে পড়ার মতো।
এ প্রসঙ্গে সোমবার মুঠোফোনে সাংবাদিক তানজিজুল ইসলাম স্বরণের সাথে কথা বললে তিনি জানান, তার একমাত্র ভাইয়ের মৃত্যুতে তারা পারিবারিকভাবে খুবই ভেঙ্গে পরেছে। বাবাকে হারানোর পর ভাইকে হারানোর যে বেদনা তা তিনি সহ্য করতে পারলেও তার মা শোকে পাথর হয়ে গেছে। তিনি জানান রাফির মরদেহ মালয়েশিয়া থেকে হাই কমিশন এর মাধ্যমে বাংলাদেশে আনার ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। দেশে পৌছানো ফ্লাইটের নির্দিষ্ট তারিখ এবং সময় জানার পর নামাজে জানাযার নির্ধারিত সময় এবং স্থান পরবর্তীতে জানিয়ে দেয়া হবে। তিনি সকলের কাছে তার ভাইয়ের রুহের মাগফেরাত কামনা করে দোয়া কামনা করেছেন। খবর বিজ্ঞপ্তির