বগুড়ায় জোব্বার হত্যা মামলায় ৯জনের যাবজ্জীবন

স্টাফ রিপোর্টার:দীর্ঘ ১৪ বছর পর বগুড়ায় আব্দুল জোব্বার হত্যা মামলায় ৯জনকে যাবজ্জীবন কারাদন্ড প্রদান করেছেন ১ম অতিরিক্তি জেলা ও দায়রা জজ আদালত। একই সঙ্গে দন্ড প্রাপ্তদের ২০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে ছয় মাসের কারাদন্ডাদেশ দেওয়া হয়েছে। বুধবার দুপুর ১২টার দিকে ওই আদালতের বিচারক হাবিবা মন্ডল এ রায় ঘোষণা করেন। হত্যা মামলায় নির্দোষ প্রমাণিত হওয়ায় আরও ৬জনকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন আদালত।দন্ডিতরা হলেন- বগুড়ার সদর উপজেলার চালিতাবাড়ি নাগরকান্দি পাড়া এলাকার যথাক্রমে- ইসমাইল ওরফে ইন্নুসের ছেলে মানিক মিয়া(৩৪), আঃ গনির ছেলে আঃ গফুর(৩৪), এছান আলীর ছেলে ইসমাইল ওরফে ইন্নুস(৫৯), ইন্নুসের ছেলে জাকের মিয়া(৩৯) ও মাসুদ মিয়া(৩৭), এছান আলী মোস্তার ছেলে আঃ খালেক(৫৬) ও আঃ গনি(৫৪), ইব্রাহিমের ছেলে ইন্তাজ আলী(৩৪) এবং মছির উদ্দিনের ছেলে সুলতান মোল্লা(৫২)। এদের মধ্যে মানিক মিয়া ও আব্দুল গফুর পলাতক থাকায় বাকি সাতজন রায় ঘোষণাকালে আদালতে উপস্থিত ছিলেন। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের সরকারি কৌসুলী এডভোকেট নাসিমুল করিম হলি।এর আগে, ২০০৮ সালের ২০ জুন জমি জমা সংক্রান্ত দ্বন্দ্বের জেরে ছুরিকাঘাতে খুন হন চালিতাবাড়ি নাগরকান্দি পাড়ার ছমির উদ্দিনের ছেলে আব্দুল জোব্বার। ওইদিন রাতেই নিহতের ভাই সাজু মিয়া সদর থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সদর থানার তৎকালীন এস আই একে এম শরিফুল আলম ১৬জনকে আসামী করে বিরুদ্ধে চার্জশীট দাখিল করেন। ১৬জনের মধ্যে একজন মারা যাওয়ায় ১৫ জনের বিরুদ্ধে ১৬জন স্বাক্ষ্য প্রদান করে। সব স্বাক্ষ্য গ্রহণ শেষে ১৪ বছর পর বুধবার আদালতে জোব্বার হত্যা মামলায় ৯ জনকে যাবজ্জীবন এবং বাকি ৬জনকে বেকসুর খালাস প্রদান করেন। মামলায় আসামি পক্ষের আইনজীবী ছিলেন রেজাউল করিম মন্টু, আনোয়ার হোসেন, সেকেন্দার আলী এবং বিনয় কুমার দাস বিশু।