নির্মাণকাজে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার মান্দায় তিন কোটি টাকার মাদ্রাসার ভবন নির্মাণে অনিয়ম

সাজ্জাদুল তুহিন, মান্দা (নওগাঁ) থেকে: নওগাঁর মান্দায় তিন কোটি টাকা ব্যয়ে একটি মাদ্রাসার ভবন নির্মাণকাজে অনিয়মের অভিযোগ পাওয়া গেছে। নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে ভবনের ছাদ ঢালাইয়ের কাজ করা হয়েছে বলে জানা গেছে। এ ছাড়াও নিম্নমানের ইট ব্যবহার করে কাজ করা হচ্ছে। নিম্নমানের ইট ব্যবহার ও কাজের অনিয়মের ব্যাপারে শিক্ষকরা সংশ্লিষ্টদের অবহিত করেও তারা নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করছে।
সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অধীনে নির্বাচিত মাদ্রাসা উন্নয়ন প্রকল্পের আওতায় ৪ তলা ভবন নির্মাণ কাজের জন্য শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের অর্থায়নে দুই কোটি ৯৩ লক্ষ ৪৪ হাজার ৯৬১ টাকা নির্মাণ ব্যয় ধরে উপজেলার ছোট চক-চম্পক দাখিল মাদ্রাসার ভবন নির্মাণের দরপত্র আহ্বান করা হয়। কাজটি পায় নওগাঁর ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান আকবর-মিলন (জেভি)। কাজের সময় ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠানের একজন উপ-সহকারি প্রকৌশলী উপস্থিত থাকার বিধান থাকলেও এখানে তার ব্যত্যয় ঘটেছে। আর এ অবস্থাতেই দ্বিতীয় তলার ছাদ ঢালাইয়ের কাজ চলমান রয়েছে।
বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) সরেজমিনে উপজেলার ছোট চক-চম্পক দাখিল মাদ্রাসায় গেলে নিম্নমানের ইট, ভরাট বালি ও মরিচা ধরা রড দিয়ে কাজ করতে দেখা যায়।
ভবন নির্মানে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহারের বিষয়ে প্রধান শিক্ষক আব্দুর রশিদ জানান, নিম্নমানের ইট ব্যবহার করে কাজ করা হচ্ছে। নিম্নমানের ইট ব্যবহার ও কাজের ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের অবহিত করলেও কাজ চলমান রাখাই ক্ষোভ প্রকাশ করেন তিনি।
মাদ্রাসার সভাপতি সাখাওয়াত হোসেন স্বপন বলেন,
উপ-সহকারি শিক্ষা প্রকৌশল আপেল হোসেনের দায়ছাড়া তদারকির কারণে অনিয়ম করে যাচ্ছে ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান। তিনি আরও বলেন, বারবার প্রকৌশল দপ্তরকে নিম্নমানের সামগ্রী ব্যবহার করে কাজ করার কথা জানানোর পরও তারা অনিয়ম করে কাজ চালিয়ে যাচ্ছেন।
এ ব্যাপারে শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের উপ-সহকারি প্রকৌশলী আপেল হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, অনিয়মের বিষয়টি আমার জানা নেই। যদি এরকম কাজ হয়ে থাকে তাহলে সেখান থেকে নিম্নমানের ইট সরিয়ে নেওয়া হবে। কথা প্রসঙ্গেঁ তিনি আরও বলেন, নিম্নমানের ইট ব্যবহারের কারণে কাজ বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। এরকম কাজ সব ভবন নির্মাণে কম বেশি হয়ে থাকে।
শিক্ষা প্রকৌশল অধিদপ্তরের জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী আবু সাঈদ বলেন, অনিয়মের বিষয়টি আমি জেনেছি। সাইটে গিয়ে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ সংবাদ