ঘোড়াঘাটে দূর্নীতি অনিয়মের প্রতিবাদ করায় সাজ্জাদ চেয়ারম্যান কর্তৃক সদস্য মালেক লাঞ্চিত

মাহতাব উদ্দিন আল মাহমুদ, ঘোড়াঘাট (দিনাজপুর) প্রতিনিধিঃ-দিনাজপুরের ঘোড়াঘাট উপজেলার সিংড়া ইউপি চেয়ারম্যানের বিরুদ্ধে দূর্নীতি অনিয়মের প্রতিবাদ করায় সদস্য আব্দুল মালেক মন্ডলকে লাঞ্চিত করেছেন ইউপি চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন। সিংড়া ইউনিয়ন পরিষদের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য আব্দুল মালেক মন্ডল জানান, নির্বাচিত হওয়ার পর থেকে চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন একের পর এক অনিয়ম দূর্নীতি করে আসছে। তার একচ্ছত্রা আধিপত্য আর স্বেচ্ছাচারিতা করে দূর্নীতি অনিয়মের পাহাড় গড়ে তুলেছে। একারণে আমি ইউপি সদস্য আব্দুল মালেক মন্ডল সহ ৪ জন সদস্য সিংড়া ইউনিয়নের আমাদের এলাকার উন্নয়ন মূলক কর্মকান্ড থেকে বঞ্চিত করে রেখেছেন চেয়ারম্যান সাজ্জাদ হোসেন। দীর্ঘ দিনের পুঞ্জিভূত দূর্নীতির প্রতিবাদ করায় সম্প্রতি ইউনিয়ন পরিষদের সামনে সোমবার দুপুরে চেয়ারম্যানের নিযুক্ত এক ব্যক্তির নিকট থেকে ২০-২৫টি জন্ম নিবন্ধানের আবেদনের কপি উদ্ধার করে। হাতে নাতে উদ্ধার করার পর তাকে ইউপি পরিষদে আসতে নিষেধ করি। বিষয়টি তৎক্ষণিক ওই ব্যক্তি চেয়ারম্যানকে জানান, চেয়ারম্যান কোন কিছু না বলেই ইউপি সদস্য আব্দুল মালেক কে চড়থাপ্পড় কিলঘুষি মেরে লাঞ্চিত করেন এবং পরিষদ থেকে টানা হেছড়া করে বের করে দেন। বিষয়টি সদস্য আব্দুল মন্ডল তার ওয়ার্ড বাসীকে জানালে ওয়ার্ড বাসী সন্ধ্যায় আব্দুল মালেক মন্ডলকে লাঞ্চিত করার প্রতিবাদে সিংড়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে জমায়েত হয়। উত্তেজিত জনতা ক্ষিপ্ত হলে এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ সুষ্ঠ বিচারের আশ্বাস দিলে তখন জনতা শান্ত হয়। ব্যক্তিবর্গ বিষয়টি নিয়ে আলোচনায় বসেন এবং বিষয়টি উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানান। তিনি পরদিন বিষয়টির সুরাহা করার আশ্বাস দেন। তবে পরদিন দাপ্তরিক কাজের ব্যস্ততার কারণে ওই দিন কোন ব্যবস্থা নেওয়া হয়নি । এর পর গত ২৪ অক্টোবর সোমবার দিন ধার্য্য করা হয়। সোমবারও দাপ্তরিক কাজে ব্যস্ততার কারণে বিয়টি স্থাগিত রয়েছে। ঘটনাটি থামাচাপা পড়ে যায়। এ কারণে নির্যাতিত ইউপি সদস্য আব্দুল মালেক সহ তারা ৪ জন তাদের এলাকার নিরাপত্তাসহ তাদের এলাকার উন্নয়ন কর্মকান্ড থেকে বঞ্চিত হওয়ার আশংকা রয়েছে। বিষয়টির সুষ্ঠ তদন্তসহ সু-ব্যবস্থা গ্রহনের দাবি করছেন নির্যাতিত ও বঞ্চিত সদস্যরা।