বগুড়ায় জমে উঠেছে ফল ব্যবসায় সমিতির ত্রি-বার্ষিক নির্বাচন

রায়হানুল ইসলাম-বগুড়ায় জমে উঠেছে ফল ব্যবসায়ী সমিতির ত্রিবার্ষিক নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে ব্যবসায়ীদের মাঝে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনা লক্ষ্য করা গেছে। প্রায় ৪৭ জন প্রার্থী আগামী ১২ ই নভেম্বর আসন্ন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।
প্রায় সাড়ে ৯ শত ভোটারের মন জয়ে তারা চষে বেড়াচ্ছে। তুলে ধরছেন স্ব-স্ব অবস্থান।
আসন্ন ১২ নভেম্বর বগুড়া ফল ব্যবসায়ী সমিতির ৬ষ্ঠ ত্রি-বার্ষিক নির্বাচনে আবারো সভাপতি পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন সুবিধা বঞ্চিত ও অবহেলিত ফল ব্যবসায়ীদের আস্থার প্রতীক নাহিদ ফল ভান্ডারের স্বত্বাধিকারী মাহমুদ শরীফ মিঠু।
সহ-সভাপতি পদে মোঃ আতোয়ার রহমান বিভিন্ন প্রতিশ্রুতিতে ভোটারদের মন জয় মাঠে নেমেছেন। সাধারণ সম্পাদক পদে (বর্তমান) আলহাজ্ব মোঃ জুলফিকার আনাম তুষার জানান, আবারো সুখে দুঃখে পাশে পাওয়ার প্রত্যয়ে তাকে সাধারণ ভোটাররা নির্বাচিত করবেন। একই সাথে সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে মোঃ আজমল হোসেন মন্ডল ডালিম প্রতীকে ভোট প্রার্থনা করে গণসংযোগ করছেন।
কোষাধক্ষ পদপ্রার্থী মোঃ রাসেল শেখ জানান, ভোটারদের আশা ভরসার স্থানে নিজেকে নিয়ে যেতে সুযোগ চান তিনি।
বগুড়া ফল ব্যবসায়ী সমিতির নির্বাচন পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব মোঃ সোহরাব হোসেন জানান, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ ভোট নির্বাচনে তারা ব্যাপকভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। সভাপতি পদপ্রার্থী মাহমুদ শরীফ মিঠু বলেন, আপনারা নিশ্চয়ই জানেন, বিগত দিনে সমিতির ঘর মেরামত, সমিতির যাবতীয় ফার্ণিচার, সময় মত চিকিৎসা, বিবাহ, মৃত্যুভাতা বৃদ্ধি পাশাপাশি সম্পূর্ণ পরিশোধ করেছি এবং সাধারণ সভায় নগদ ৬,৫০,০০০/- (ছয় লক্ষ পঞ্চাশ হাজার) টাকা সমিতির নামে ব্যাংকে জমা করেছি।
আমি গত নির্বাচনে নিজেই প্রতিদ্বন্দ্বিতা না করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম যেন কেউ আমার চাইতে ভাল কাজ করেন এই সুযোগ দেয়ার জন্য। কিন্তু তা হয়নি যে কারণে অনেক প্রবীণ সদস্যদের অনুরোধে আমাকে আবারও নির্বাচন করতে হচ্ছে। আবারো যদি আমি নির্বাচিত হই তবে অবশ্যই সমিতির সকল সদস্যদের বিভিন্ন সমস্যা ও চাহিদা পূরণে আমার ত্যাগ থাকবে অপ্রতিরোধ্য। উল্লেখ্য, ১২ ই নভেম্বর নির্বাচন আর ২ নভেম্বর প্রতীক বরাদ্দ চূড়ান্ত হবে।