সাঘাটায় মেলান্দহ সেতুর সংযোগ সড়কে ধস যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার আশঙ্কা

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ গাইবান্ধার সাঘাটা উপজেলায় বাঙালী নদীর উপর নির্মিত মেলান্দহ সেতুর দু’পাড়ে সংযোগ সড়ক অনেকটা ধসে গেছে। জরুরী ভিত্তিতে সংস্কার করা না হলে যেকোনো মুহুর্তে প্রবল বৃষ্টি হলেই সড়কে গভীর গর্তের সৃষ্টি হয়ে যানবাহন চলাচল বন্ধ হওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।
গাইবান্ধার সাঘাটা-বোনারপাড়া, জুমারবাড়ী-সোনাতলা সড়কে বাঙালী নদীর উপর সড়ক ও জনপথ অধিদপ্তরের অধীনে মেলান্দহ সেতু নির্মাণ করা হয়। নদীর গতিপথ অনুযায়ী পাশাপাশি দুটি সেতু নির্মাণ করা হয়। ১৪ কোটি ৩৫ লাখ টাকা ব্যয়ে ২৬০ মিটার, অপরটি ৩১ মিটার দৈর্ঘ্য ও ৯.৫০মিটার প্রস্থ এবং ৩৬.৬০ মিটার ওয়েল ও পাইল ফাউন্ডেশন পিসি গার্ডার পাশাপাশি দুটি। সেতুটি সড়ক ও জনপথ বিভাগের অর্থায়নে ঢাকার এক ঠিকাদার নির্মাণ কাজ সম্পন্ন করেন। নির্মিত সেতুটি ২০১৫ সালের ১৮ ফেব্রুারি আনুষ্ঠানিকভাবে খুলে দেয়া হয়। সেতুর দু’পাড়ে সড়ক পাকাকরণ কাজ নিম্নমানের হওয়ায় একটু বৃষ্টি হওয়ায় দু’পাড়ে সংযোগসড়ক ধসে গভীর গর্তের সৃষ্টি হয়। সেতু কর্তৃপক্ষ বারবার বালুমাটি দিয়ে গর্ত ভরাট করলেও তা টেকসই এবং স্থায়ী না হওয়ায় আবারো বৃষ্টির পানিতে ধসে যায়। কয়েকদিন আগেই সেতু ঘেষে পূর্বপাড়ে সড়কের দু’পাশের গভীর গর্ত বালুমাটি দিয়ে কোনরকমে ভরাট করা হয়েছে। এর আগে পশ্চিম পাড়েও সংযোগ সড়ক কয়েক দফা ধসে গেলে অনুরূপভাবে বালুমাটি দিয়ে ভরাট করা হয়েছিলো। এবার বৃষ্টির পানির তোরে আবারো সেখানে ধসে গেছে।
স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান আমিরুল ইসলাম জানান, সেতুর সংযোগ সড়ক বৃষ্টির কারণে ধসে যাচ্ছে। দ্রুত স্থায়ীভাবে সংস্কার করা না হলে যে কোনো মুহুর্তে সড়ক ধসে বড় ধরণের গর্তের সৃষ্টি হয়ে যান চলাচল বন্ধ হতে পারে। এব্যাপারে সড়ক ও জনপথ (সওজ) বিভাগের গাইবান্ধা জেলা নির্বাহী প্রকৌশলী ফিরোজ আক্তার জানান, সেতুর সংযোগ সড়ক ধসে যাওয়া অংশটি দ্রুত সংস্কারের উদ্যোগ নেয়া হবে।

 

সর্বশেষ সংবাদ