এই সরকারের অধীনে কোন নয়, নির্বাচন হবে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে-এ্যাড. মাহবুব

প্রেস রিলিজ-বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্ঠা এ্যাড. একেএম মাহবুবর রহমান বলেন, এই অবৈধ সরকারের অধীনে আর কোন নয়, নির্বাচন হতে হবে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে। এই অবৈধ হাসিনা সরকার জোর করে ক্ষমতায় থাকতে চায়। তারা জনগণকে বঞ্চিত করে বিনা ভোটে ক্ষমতায় টিকে থাকতে চায়। তাই তার অধীনে কোনো নির্বাচন হতে পারে না। হাসিনা সরকারকে অবশ্যই পদত্যাগ করে তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচন দিতে হবে। যেকোনো সময়ে চূড়ান্ত আন্দোলনের ডাক আসবে। সেই আন্দোলনের সর্বাত্মক প্রস্তুতি সবাইকে নিতে হবে। এবারের লড়াইটা শুধু অস্তিত্ব রক্ষার লড়াই হবে না, দেশের স্বাধীনতা-সার্বভৌমত্ব থাকবে কি থাকবে না, দেশের গণতন্ত্র, মানুষের ভোটাধিকার থাকবে কি থাকবে না তা নির্ধারণের লড়াই। ডু অর ডাই হিসেবে এবারের আন্দোলনের জন্য যুবদলের প্রত্যেক নেতাকর্মীকে তৈরী থাকতে হবে। যুবদলই হবে আন্দোলনের ফলাফলের নির্ধারক। বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী যুবদলের ৪৪ তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বগুড়া জেলা যুবদলের উদ্যোগে বৃহস্পতিবার সকাল ১১ টায় র‌্যালী শেষে দলীয় কার্যালয়ের সামনে বগুড়া জেলা যুবদলের আহবায়ক খাদেমুল ইসলাম খাদেম এর সভাপতিত্বে ও যুগ্ম আহবায়ক জাহাঙ্গীর আলমের সঞ্চালনায় যুব সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। যুব সমাবেশে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিএনপি চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা ও কৃষকদল কেন্দ্রীয় কমিটির সিনিয়র সহ-সভাপতি সাবেক এমপি মোঃ হেলালুজ্জামান তালুকদার লালু, প্রধান বক্তার বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা বিএনপির আহবায়ক এডভোকেট সাইফুল ইসলাম, বিশেষ বক্তার বক্তব্য রাখেন বগুড়া জেলা বিএনপির সদস্য সচিব আলহাজ্ব মোশাররফ হোসেন এমপি। যুব সমাবেশে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির জাতীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য ভিপি সাইফুল ইসলাম, আলী আজগর তালুকদার হেনা, জয়নাল আবেদীন চাঁন, বগুড়া পৌরসভার মেয়র বিএনপি নেতা রেজাউল করিম বাদশা, জেলা বিএনপির সাবেক যুগ্ম আহ্বায়ক ফজলুল বারী তালুকদার বেলাল, জেলা বিএনপি নেতা এম আর ইসলাম স্বাধীন, কে এম খায়রুল বাশার, শেখ তাহাউদ্দিন নাহিন, শহীদ উন নবী সালাম, জেলা যুবদলের সাবেক সাধারণ সম্পাদক জেলা স্বেচ্ছাসেবকদলের আহবায়ক রাকিবুল ইসলাম শুভ, জেলা স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্য সচিব আবু হাসান, ছাত্রদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি সাইদুল ইসলাম, সাধারণ সম্পাদক নুরে আলম সিদ্দিকী রিগ্যান, জেলা যুবদল আহবায়ক কমিটির সদস্য ফারুকে আজম, শাহনেওয়াজ সাজন, রাশেদুল ইসলাম, শফিকুল ইসলাম, রেজাউল করিম লাবু, সাইফুল ইসলাম রনি, শহর যুবদলের আহ্বায়ক আহসান হাবীব মমি, সদস্য সচিব আদিল শাহরিয়ার গোর্কি, যুগ্ম আহবায়ক হারুনুর রশিদ সুজন, আলি রেজা রুনু, তাজমিলুর ইসলাম বিচিত্র, মাহমুদুল হাসান প্রিন্স, সুুরুজামান, ফরিদ আহমেদ মুন, শাহাদত হোসেন সোহাগ, জুম্মান শেখ, রাশেদুল কবির, মেহেদি হাসান নয়ন, মোসলেম উদ্দিন স্বপন, রেজাউল করিম, মাসুম, বিপুল, শহর যুবদলের যুগ্ম আহবায়ক ইমরান হোসেন, তারিক মজিদ সোহাগ, সৌরভ হাসান শিবলু, মোহাম্মদ জাহেদ হোসেন, আবু সাঈদ মন্ডল, সাদ্দাম হোসেন, সদর উপজেলা যুবদলের আহবায়ক অতুল চন্দ্র দাস, যুগ্ম আহবায়ক তৌহিদূর রহমান, গাবতলি উপজেলা যুবদলের আহবায়ক আরিফুর রহমান মজনু, যুগ্ম আহবায়ক রুহুল হাসান রুহিন, শাজাহানপুর উপজেলা যুবদলের আহ্বাক সোহেল আরমান রাজু, যুগ্ম আহবায়ক জিল্লুর রহমান, শিবগঞ্জ উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক মুকুল, যুগ্ম-আহবায়ক আরমান,পৌর যুবদলের আহবায়ক শাহীন যুগ্ম-আহবায়ক তমাল,নন্দীগ্রাম উপজেলা আহবায়ক সুমন,নন্দীগ্রাম পৌর আহবায়ক রব্বানী, যুগ্ম-আহবায়ক শাহীন, সারিয়াকান্দি উপজেলা আহবায়ক মহিদুল মুন্সি, যুগ্ম-আহবায়ক ফনি, পৌর শাখার আহবায়ক সৈকত, যুগ্ম-আহবায়ক ডাবলু, দুপচাঁচিয়া উপজেলা যুবদলের আহ্বায়ক আফছার আলী, যুগ্ম-আহবায়ক মোজাফফর, পৌর যুবদলের আহবায়ক মানিক, যুগ্ম-আহবায়ক নাঈম, সোনাতলা যুবদল আহবায়ক হান্নান, যুগ্ম-আহবায়ক বাবু, পৌর আহ্বায়ক হারুনুর রশিদ যুগ্ম-আহবায়ক রনি, কাহালু উপজেলা যুবদলের আহবায়ক জিল্লুর রহমান, যুগ্ম-আহবায়ক মমিন, পৌর যুবদলের আহবায়ক পারভেজ, যুগ্ম-আহবায়ক খোকন, আদমদীঘি উপজেলার আহবায়ক মিনহাজ, যুগ্ম-আহবায়ক জুয়েল, তালোড়া পৌর শাখার আহবায়ক এমদাদুল হক, রাশেদুল ইসলাম, সান্তাহার পৌর শাখার আহ্বায়ক ওয়াহেদ, যুগ্ম-আহবায়ক লিটন, ধুনট উপজেলা শাখার আহবায়ক রাশেদুজ্জামান উজ্জ্বল, যুগ্ম-আহবায়ক হালিম, পৌর শাখার আহ্বায়ক আবু তালহা শামীম, যুগ্ম-আহবায়ক আল আমিন সহ বিভিন্ন ইউনিটের নেতৃবৃন্দ। সমাবেশ শেষে প্রতিষ্ঠাবার্ষিকি উপলক্ষে কেক কর্তন করা হয়।

 

সর্বশেষ সংবাদ