২৪তম জাতীয় ক্রিকেট লিগ মুশফিকের আগুন ঝরা বোলিংয়ে জয়ের সুবাস পাচ্ছে রংপুর

বগুড়া প্রতিনিধি: ২৪তম জাতীয় ক্রিকেট লিগে বগুড়া ভেন্যুতে পেস বোলারদের গতির তান্ডব অব্যাহত রয়েছে। প্রথম দিনের মত দ্বিতীয় দিনেও পেসারদের সামনে অসহায় আত্মসমর্পন করেছেন ব্যাটসম্যানরা। পেসার মুশফিক হাসানের আগুন ঝরা বোলিংয়ে ঢাকার বিপক্ষে জয়ের সুবাস পাচ্ছে রংপুর বিভাগ। মুশফিক হাসান ৮ উইকেট নিয়ে একাই ম্যাচ থেকে ছিটকে দিয়েছেন ঢাকাকে। ঢাকার দ্বিতীয় ইনিংস ১৯৯ রানে গুটিয়ে দিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ৩ উইকেটে ১৩৫ রান তুলেছে রংপুর। সোহরাওয়ার্দী শুভ ৬৪ এবং নাসির হোসেন ২৬ রানে অপরাজিত আছেন। জয়ের জন্য রংপুরের প্রয়োজন আর মাত্র ৭৬ রান।
প্রথম দিনের শেষ বিকেলে দ্বিতীয় ইনিংসে ঢাকার দুই ওপেনার উড়ন্ত সূচনা করলেও দ্বিতীয় দিনে তারা সুবিধা করতে পারেননি। পেসার মুশফিক হাসান একাই ঢাকার ব্যাটিং লাইনআপ ধসিয়ে দিয়েছেন। বিনা উইকেটে ৮৮ রানে প্রথম দিন শেষ করা ঢাকা বিভাগের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ হয়েছে ১৯৯ রানে। মুশফিক হাসান ১৭ দশমিক ৫ ওভারে ৭৩ রান দিয়ে একাই শিকার করেছেন ৮ উইকেট। অবশিস্ট ২ উইকেট নিয়েছেন রবিউল ইসলাম। ঢাকার পক্ষে সর্বোচ্চ ৭৪ রান এসেছে মাহিদুল ইসলাম অংকনের ব্যাট থেকে। ৩৩ করেছেন আব্দুল মজিদ, রণি তালুকদার ২১ এবং রবিউল হাসান নয়ন করেছেন ১৮ রান।
বিনা উইকেটে ৮৮ রানে দ্বিতীয় দিন শুরু করা ঢাকা প্রথম ধাক্কা খায় দিনের ৩য় বলে। মুশফিকের বলে লেগ বিফোর উইকেটের ফাঁদে পড়েন ওপেনার আব্দুল মজিদ। এরপর নিয়মিত বিরতিতে একটার পর একটা ব্যাটসম্যানকে সাজঘরে ফেরান মুশফিক হাসান। দলীয় ১২৪ রানে ব্যক্তিগত ৭৪ করে মাহিদুল ইসলাম অংকন আউট হওয়ার পর আর কোন ব্যাটসম্যান রংপুরের পেসারদের সামনে মাথা তুলে দাঁড়াতে পারেনি। রনি তালকুদার এবং রবিউল হাসান নয়ন কিছুটা প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করেও সফল হতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত ১৯৯ রানে ঢাকার দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে গেলে রংপুরের সামনে জয়ের টার্গেট দাঁড়ায় ২১১ রান।
ঢাকার দ্বিতীয় ইনিংস গুটিয়ে দিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসের শুরুতেই ওপেনার আব্দুল্লাহ আল মামুনকে হারায় রংপুর বিভাগ। দলীয় ১৪ রানে মাত্র ৪ রান করে সালাহউদ্দিন শাকিলের বলে সুভাগতহোমের হাতে ক্যাচ দিয়ে বিদায় নেন মামুন। আরেক ওপেনার মাইশুকুর রহমানকে সাথে নিয়ে ইনিংস মেরামত করেন অভিজ্ঞ সোহরাওয়ার্দী শুভ। দলীয় ৬৩ রানে মাইশুকুর (৩৩) এবং ৬৮ রানে তানভির হায়দার আউট হলে চাপে পড়ে রংপুর। তবে, সোহরাওয়ার্দী শুভ এবং নাসির হোসেনের দৃঢ়তায় আর কোন উইকেটের পতন ঘটেনি। এই জুটি অবিচ্ছিন্ন থেকে দলে যোগ করেছেন ৬৭ রান। দ্বিতীয় দিন শেষে রংপুর বিভাগের দ্বিতীয় ইনিংসে সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৩৫ রান। সোহরাওয়ার্দী শুভ ৬৪ এবং নাসির হোসেন ২৬ রানে অপরাজিত আছেন। জয়ের জন্য রংপুরের প্রয়োজন আর মাত্র ৭৬ রান। আজ ম্যাচের ৩য় দিন।
সংক্ষিপ্ত স্কোর: ঢাকা বিভাগ- প্রথম ইনিংস: ৮৪/১০, সুভাগতহোম ২৮, তাইবুর ১৫, সোহেল রানা ২৫/৫, আরিফুল ১০/৩, আব্দুল্লাহ আল মামুন ১/২।
ঢাকা বিভাগ- দ্বিতীয় ইনিংস: ১৯৯/১০। মাহিদুল ইসলাম অংকন ৭৪, আব্দুল মজিদ ৩৩। মুশফিক হাসান ৭৩/৮, রবিউল ৫৩/২।
রংপুর বিভাগ- প্রথম ইনিংস: আরিফুল ১৯, রবিউল ১৬, নাসির ১৪। সুমন ৩৩/৫, শাকিল ৪/৩।
রংপুর বিভাগ- দ্বিতীয় ইনিংস: ১৩৫/৩, শুভ ৬৪*, নাসির ২৬*। শাকিল ৩৯/২।