অনলাইনে বানিয়ে নিন ব্যক্তিগত “ডায়েট চার্ট”

মাত্র পাঁচ মিনিটে অনলাইনে বানিয়ে ফেলুন আপনার ডায়েট চার্ট।

 
ওজন দিন দিন বেড়েই চলেছে৷ কিন্তু কাজের চাপে ডায়েটিশিয়ানের কাছে যাওয়ার সময় নেই৷ যেদিন বা সময় পেলেন দেখলেন আপনি লম্বা লাইনের পিছনে৷ ছুটির দিনে যাবেন ভাবলেন, সেদিনই থাকলো পারিবারিক নিমন্ত্রণ বা কোনও কাজ৷ ব্যস, উৎসাহ গেল হারিয়ে৷ হতাশায় আরও কিছু ভুলভাল খাবার খেয়ে নিলেন৷

 
এই সমস্যা আপনার একার নয়৷ আমাদের সবার৷ কেমন হত যদি ঘরে বসেই পেয়ে যেতেন আপনার ডায়েট প্ল্যান?

 
এবার ডায়েটিশিয়ানের কাছে যাওয়া ছেড়ে অনলাইনেই বানিয়ে ফেলুন নিজের ডায়েট চার্ট৷ কী ভাবছেন বিশেষজ্ঞদের মতামত পাবেন কীভাবে? এই সমস্যারও সমাধান রয়েছে, বিশ্বের অনেক তাবড় নিউট্রিশনিস্টরা আপনার ডায়েট চার্ট তৈরি করে দেবে৷ তাও নামমাত্র খরচে৷

 
একাধিক সাইট পাবেন যারা অনলাইনে আপনার ওজন, বয়স, লাইফস্টাইল, উচ্চতা, অসুখ সম্বন্ধে জেনে তৈরি করে দেবে ডায়েট চার্ট৷

 
ধরা যাক, আপনার বয়স ৩৩৷ ওজন ৬৪ কেজি৷ উচ্চতা ৫ ফুট ৪ ইঞ্চি৷ ক্যালোরি ক্যালকুলেটরই বলে দেবে আপনার ওজন কতটা বেশি৷ আপনার কী ধরনের ডায়েট প্ল্যান করা উচিত৷ এরপর আপনি বেছে নিন মাস অনুযায়ী বা পকেট অনুযায়ী কোনও পরিকল্পনা। শুরু করে দিন ডায়েটিং৷ মেইলে চলে আসবে আপনার খাওয়ার রুটিন৷ কোনও সমস্যা হলে বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে স্কাইপে চ্যাট করতে পারবেন৷ ফোনেও কথা বলতে পারবেন।

 
এমসকী কোনওদিন বাইরে খেতে যাওয়ার প্ল্যান থাকলে সেটাও জানিয়ে রাখতে পারেন৷ কী খাবেন কতোটা খাবেন বলে দেবেন এক্সপার্ট৷

 
বাড়িতে পার্টি? লো-ক্যালরির খাবারের রেসিপিও পেয়ে যাবেন এখানে৷

 
এখন প্রশ্ন হলো কোন কোন সাইট দেখবেন? সঠিক সাইটের খোঁজ না থাকলে কিন্তু সঠিক ডায়েট প্ল্যানও পাবেন না৷ তাই জেনে নিন নামগুলো৷

 
সাইট অনেকই রয়েছে৷ তবে সাবস্ক্রাইব করার আগে দেখে নিন কোনগুলো ভালো৷ কোনটা আপনার জন্যে উপকারি। দেখতে পারেন-

 
www.nutritionvista.com, www.theweightmonitor.com, www.fitho.in, www.dietsolutions.co.in, www.theweightlossprogram.in

 
প্রত্যেক সাইটেই এক্সপার্টরা রয়েছেন৷ একমাস থেকে ছয়মাসের প্রোগ্রাম পাবেন৷ নিজের সুবিধা অনুযায়ী বেছে নিন৷

 
শুধু ওজন কমানো নয়, ওজন বাড়াতেও পারেন৷ ক্রেডিট বা ডেবিট কার্ডের মাধ্যমে পেমেন্ট করতে পারেন৷ তাই কোনও বাড়তি ঝামেলা নেই৷ কোনও সমস্যা হলে বা দ্বিধা থাকলে ফোন করে বা মেল করে জেনে নিতে পারেন৷ একেবারে আপনার জন্যেই তৈরি করে দেওয়া হবে এই ডায়েট।

 
তবে মনে রাখুন

 
১) নিজের কাছে সৎ থাকুন৷ প্রথম থেকেই নিউট্রিশনিস্টকে সব সত্যি কথা বলুন।

 
২) কোনওদিন ডায়েট করতে না পারলে উদ্বিগ্ন হবেন না৷ কথা বলে নিন নিউট্রিশনিস্টের সঙ্গে

 
৩) নিজের ডায়েট চার্ট অন্য কারও সঙ্গে শেয়ার করবেন না৷ কারণ কেউ কারও মতো নয়

 
৪) নিজের ডায়েটিং-এর জন্যে সময় দিন৷ কে কী বললো ভাববেন না

 

৫) কম সময়ের প্রোগ্রাম নিন৷ উপকার পেলে তবে বেশি মাসের জন্যে রেজিস্টার করুন।