বাণিজ্যিকভাবে বালু উত্তোলন তলিয়ে যাচ্ছে কৃষি জমি ও বসত-ভিটা

সৈয়দপুর (নীলফামারী) প্রতিনিধি: পার্শ্ববর্তী নীলফামারী সদর উপজেলার চড়াইখোলা ইউনিয়নের ডাঙ্গাপাড়া এলাকায় একটি বিশেষ মহল বাণিজ্যিকভাবে বালু উত্তোলন করায় জমি সংলগ্ন একটি গ্রামের বসতভিটা ও আবাদী জমি তলিয়ে যাওয়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। ইতোমধ্যে খননকৃত পুকুরে ধ্বসে পড়েছে সংলগ্ন আবাদী জমি। এলাকাবাসী আকস্মিক ভুমি ধ্বসের হাত থেকে গ্রামটি রায় আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার আশু হস্তপে কামনা করেছেন।
সরেজমিনে জানা গেছে, ওই এলাকার মৃত জাফর উদ্দিনের পুত্র সিরাজুল তার ৭ শতক জমিতে ড্রেজিং মেশিন বসিয়ে বাণিজ্যিক ভিত্তিতে বালু উত্তোলন শুরু করেন। প্রায় ৫০ ফিট গভীরতা সৃষ্টি হওয়ায় একই এলাকার কাইল্ঠা মামুদের ২২ শতক জমিসহ মফেল, মফিজ, মোকলেস, ইয়াকুব আলীর আবাদি জমি সিরাজুলের খননকৃত জমিতে ধ্বসে পড়ে। এরই সুযোগে সিরাজুল ইসলাম ওইসব জমি মালিকের কাছে অর্থের লোভ দেখিয়ে বালু উত্তোলন অব্যাহত রাখে। এভাবে চলতে থাকলে অল্প দিনের মধ্যেই পুরো গ্রাম ধ্বসে পড়ার আশংকা দেখা দিয়েছে। তাছাড়া ওই গভীরতার পুকুরে এলাকার কোন শিশু পড়লে বাঁচার সম্ভাবনা নেই বলে জানান কাইলঠা মামুদ।
এবিষয়ে এলাকাবাসী একাধিকবার উক্ত সিরাজুল ইসলামকে অবৈধভাবে বালু উত্তোলন বন্ধের অনুরোধ করলেও তিনি কর্ণপাত করেননি। অবৈধ বালু উত্তোলন বন্ধে এলাকাবাসী আইনপ্রয়োগকারী সংস্থার আশু হস্তপে কামনা করেছেন।