সিলেটে ব্লোগার অনন্তর খুনিদের গ্রেপ্তারের দাবিতে আন্দোলনের হুমকি

জিটিবি নিউজ ডেস্ক : ব্লোগার অনন্ত বিজয় দাশের খুনিদের গ্রেপ্তার না করলে সিলেটে কঠোর কর্মসূচি শুরু করার ঘোষণা দিয়েছেন প্রগতিশীল আন্দোলনের নেতারা। তারা জানিয়েছে, রমজান মাসের মধ্যে হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করা না হলে পরবর্তীকালে অবরোধ, অবস্থান ধর্মঘটসহ কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। এদিকে, অনন্ত খুনের ঘটনায় আটক সিলেটের ফটোসাংবাদিক ইদ্রিস আলীর রিমান্ড শেষ হয়েছে। তাকে আজ সিলেটের আদালতে তোলা হবে। তবে, সিআইডি সূত্র জানিয়েছে, ফটোসাংবাদিক ইদ্রিস আলীর কাছ থেকে তদন্তে অগ্রগতির বিষয়ে কিছুই পাওয়া যায়নি। এক সপ্তাহ আগে ইদ্রিস আলীকে সিলেট শহর থেকে গ্রেপ্তার করেছিল সিআইডি। তাকে ৭ দিনের রিমান্ডে নিয়ে ঢাকায় চলে যায় সিআইডি। ওখানে সিআইডির হেড কোয়ার্টারে রেখে তাকে ব্যাপক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এর পরও পুলিশ তার কাছ থেকে তেমন তথ্য উদঘাটন করতে পারেনি। এদিকে, শনিবার রাতে সিলেটের নজরুল একাডেমিতে প্রগতিশীল দলসমূহের উদ্যোগে বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে বক্তারা বলেন, অনন্ত বিজয় হত্যার এক মাস হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত সব হত্যাকারীদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি প্রশাসন। জনৈক সাংবাদিককে গ্রেপ্তার করে রিমান্ডে নেয়া হলেও এখন পর্যন্ত জনগণ হত্যার রহস্য সম্পর্কে অবগত হতে পারেনি। সভায় বক্তার বলেন, প্রশাসনের ব্যর্থতার কারণে একের পর এক বিজ্ঞানমনস্ক লেখকদের জঙ্গি সন্ত্রাসীগোষ্ঠী তালিকা তৈরি করে হত্যা করলেও প্রশাসন তা বন্ধের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণ করতে পারেনি। জেলা বাসদ সমন্বয়ক কমরেড আবু জাফরের সভাপতিত্বে ও ওয়ার্কার্স পার্টি সাধারণ সম্পাদক কমরেড সিকান্দার আলীর পরিচালনায় সমাবেশে বক্তব্য দেন, গণতন্ত্রী পার্টি সভাপতি ব্যারিস্টার মো. আরশ আলী, জাসদ কেন্দ্রীয় যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লোকমান আহমদ, মহানগর গণফোরাম সভাপতি অ্যাডভোকেট আনসার খান, সাম্যবাদী দলের পলিট ব্যুরো সদস্য ও জেলা সম্পাদক ধীরেন সিংহ, ওয়ার্কার্স পার্টিস জেলা সভাপতি আবুল হোসেনের, ন্যাপ মহানগর সভাপতি ইছহাক আলী, সিপিবি প্রবীণ নেতা বাদল কর, জাসদ জেলা ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক কে এ কিবরিয়া, বাসদ (মার্কসবাদী) জেলা নেতা সুশান্ত সিনহা সুমন, অনন্ত বিজয় দাসের ভগ্নিপতি, আয়কর আইনজীবী সমর বিজয় দাস শেখর, প্রমুখ।