জয়পুরহাটে সাড়ে ৫ মাসেও মেলেনি অজ্ঞাত মহিলার লাশের পরিচয়

জয়পুরহাট প্রতিনিধ: জয়পুরহাটে গত সাড়ে ৫ মাসেও মেলেনি অজ্ঞাত (২৬) এক মহিলার লাশের পরিচয়। মামলার তদন্তারী কর্মকর্তা পরিবর্ত্তন হয়ে মামলাটি এখন সিআইডি’তে। সিআইডি পুলিশও কোন কুলকিনারা করতে পারছে না লাশের পরিচয় না মেলায়।
জানা গেছে, গত ২০১৪ সালের ২৭ ডিসেম্বর জয়পুরহাট সদর উপজেলার গতনশহর-পুরানাপৈল এলাকার শ্মশান ঘাটির পার্শ্বের রাস্তার পার্শ্ব থেকে সদর থানা পুলিশ অজ্ঞাত এক মহিলার লাশ উদ্ধার করে। এ ঘটনায় স্থানীয় দফাদার ওবায়দুর রহমান বাদী হয়ে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। ওই মহিলাকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয় বলে পুলিশ প্রাথমিক ভাবে জানিয়েছিল। লাশের পরিচয় না মেলায় ও মামলার কোন কুলকিনারা না করতে পারায় গত ১৫ এপ্রিল মামলাটি জয়পুরহাট সিআইডি পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। সিআইডি পুলিশও এখন পর্যন্ত এ মামলার কোন কুল কিনারা করতে পারেনি। অজ্ঞাত ওই লাশের পরিচয় পর্যন্ত মেলেনি আজও। জানা যায়নি হত্যার কারন সম্পর্কে।মামলার বর্তমান তদন্তকারী কর্মকর্তা সিআইডি’র সাব ইন্সপেক্টর আব্দুর রাজ্জাক জানায়, অজ্ঞাত ওই লাশের পরিচয় না মেলায় হত্যার কারন সম্পর্কে নিশ্চিত হওয়া যাচ্ছে না। তবে মেয়েটিকে ঢাকা কিংবা দেশের কোন প্রত্যন্ত এলাকা থেকে কোন প্রলোভনের মাধ্যমে এখানে নিয়ে এসে ধর্ষনের পর শ্বাসরোধ করে দুর্বৃত্তরা হত্যা করেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে। তবে মেয়েটির পরিচয় জানতে পাশ্ববর্তী গাইবান্ধা, গোবিন্দগঞ্জ, ঘোরাঘাট, দিনাজপুর সহ বিভিন্ন এলাকার থানা পুলিশকে বিষয়টি অবহিত করা হয়েছে।