মিরপুরে বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত নিহত

নিজস্ব সংবাদদাতা : কুষ্টিয়ার মিরপুরে পুলিশের সাথে কথিত বন্দুকযুদ্ধে নাজমুল ইসলাম সাগর (২৯) নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে। সে দৌলতপুর উপজেলার খলিসাকুন্ডি গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে। বৃহস্পতিবার রাত সোয়া দুইটার দিকে কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের পাশে মিরপুরের কাতলামারি মাঠে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১টি সার্টারগান, ৩ রাউন্ডগুলি, ১টি গাছকাটা করাত ও ২টি রাম দা উদ্ধার করেছে।মিরপুর থানার ওসি কাজি জালাল উদ্দিন জানান, বৃহস্পতিবার রাতে কুষ্টিয়া-মেহেরপুর সড়কের কাতলামারি নামক স্থানে গাছ কেটে সড়কের উপর ফেলে ডাকাতীর চেষ্টা চালাচ্ছে ১০/১২জনের একটি ডাকাতদল। এমন সংবাদে মিরপুর থানা পুলিশ সেখানে অভিযানে যান। ঘটনাস্থলে পৌঁছালে ডাকাত দলের সদস্যরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। এ সময় পুলিশও পাল্টা গুলি চালায়। প্রায় আধাঘন্টা বন্দুকযুদ্ধের একপর্যায়ে ডাকাতদলের সদস্যরা পালিয়ে যায়। পুলিশ ঘটনাস্থল তল্লাশি করে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় সাগরকে উদ্ধার করে। এবং সেখান থেকে ১টি সার্টারগান, ৩ রাউন্ডগুলি, ১টি গাছকাটা করাত ও ২টি রাম দা উদ্ধার হয়। পরে সাগরকে হাসপাতালে নিলে ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এ ঘটনায় হাসান ও রেজাউল নামে দুই পুলিশ কনস্টেবল আহত হয়। তারা মিরপুর স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি রয়েছে। তিনি আরো জানান, সাগর জাসদ নেতা পাঞ্জের হত্যা মামলার এজাহারভুক্ত আসামী। তার বিরুদ্ধে দৌলতপুর থানায় ২টি ও মিরপুর থানায় ১টি মামলা রয়েছে। ময়না তদন্তের জন্য নিহতের লাশ কুষ্টিয়া জেনারেল হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।