নীলফামারীতে ৩৪৬৩ মসজিদে একই নিয়মে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে তারাবীর নামাজ

নীলফামারী, প্রতিনিধিঃ নীলফামারী জেলার ৩৪৬৩টি মসজিদে একই নিয়মে তারাবীর নামায অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে। বাংলাদেশ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের সিদ্ধান্ত মতে সারাদেশের মতো নীলফামারী জেলায়ও একই নিদের্শনা বাস্তবায়নের সিদ্ধান্ত দিয়েছে ইসলামিক ফাউন্ডেশন নীলফামারী জেলা অফিস। নির্দেশনা অনুযায়ী তারাবীর নামাজের মাধ্যমে মাহে রমজানের প্রথম ছয়দিন দেড় পাড়া করে নয় পাড়া এবং পরের ২১ দিনে ২১ পাড়া পবিত্র কোরআন খতম করবেন হাফেজগণ। সূত্র জানায়, নীলফামারী জেলার ৩৪৬৩টি মসজিদ রয়েছে। এর মধ্যে সদর উপজেলায় ৮৩৩টি, সৈয়দপুর উপজেলায় ৩৭০টি, ডোমার উপজেলায় ৪৭৫টি, জলঢাকা উপজেলায় ৬৭৬টি, ডিমলা উপজেলায় ৫৫৬টি ও কিশোরগঞ্জ উপজেলায় ৫৫৩টি। স্থানীয় ইমামদের মতে, সকল মসজিদে একই নিয়মে তারাবীর নামায পড়ানো হলে মুসল্লিরা উপকৃত হবেন। নির্দিষ্ট কোনো মসজিদে তারাবীর নামায আদায় করতে না পারলেও যে মসজিদে নামায আদায় করবেন একই ধারাবাহিকতায় পবিত্র কুরআনের আয়াত শুনতে পারবেন। এ বিষয়টি নিশ্চিত করে ইসলামিক ফাউন্ডেশন নীলফামারী কার্যালয়ের উপ-পরিচালক সাইদুর রহমান সাইদ জানান, জেলার মসজিদগুলোয় মাহে রমজানে পবিত্র কুরআন খতম একই নিয়মে তারাবীর নামায পড়ানোর নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। এছাড়াও পবিত্র মাহে রমজানের গুরুত্ব ও তাৎপর্য তুলে ধরে জেলার নয়টি মসজিদে তাফসির মাহফিল অনুষ্ঠিত হবে।