পরিবারের সবাইকে অচেতন করে সর্বস্ব লুট

খুলনা প্রতিনিধি : বাগেরহাটে একই পরিবারের চার জনকে অচেতন করে সর্বস্ব লুটে নিয়েছে দুর্বৃত্তরা। গতকাল শুক্রবার সেহেরীর সময় অচেতন অবস্থায় তাদের উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। সকালে বাগেরহাট মডেল থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।অসুস্থরা হলেন- বাগেরহাট সদর উপজেলার সুগন্ধি গ্রামের আমজাদ আলী (৪৫), তার স্ত্রী সাহিদা বেগম (৩৪), মেয়ে অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী তন্নী (১৪) ও ছেলে সাকিব (১১)। গৃহকর্তা আমজাদ আলীর শ্যালক স্থানীয় সুগন্ধি হাফিজিয়া মাদরাসার শিক্ষক মো. শাহজাহান জানান, সেহেরীর খাওয়ার সময় পাশের বাড়ির লোকজন ডাকতে গিয়ে দরজা খোলা পেয়ে দেখে সবাই অচেতন। পরে স্বজনরাএসে তাদের উদ্ধার করে বাগেরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।তিনি আরও জানান, ধারণা করা হচ্ছে, দুর্বৃত্তরা রান্না করা খাবারের সঙ্গে চেতনাশক ওষুধ মিশিয়ে রেখেছিল। রাতের খাবার খাওয়ার পর সবাই অচেতন হয়ে পড়ে। পরে গভীর রাতে ঘরের টিনের ভেড়া কেটে প্রবেশ করে স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকাসহ গুরুত্বপূর্ণ মালামাল লুটে নেয়।এ ব্যাপারে বাগেরহাট মডেল থানার ওসি মো. তোজাম্মেল হোসেন জানান, খবর পেয়ে পুলিশ ঘনাস্থল পরিদর্শন করেছে। আহতরা সুস্থ হলে বা জ্ঞান ফিরলে বিস্তারিত জানা যাবে। এ ঘটনায় জড়িতদের খুঁজে বের করে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।