চুয়াডাঙ্গায় কোয়ার্টার থেকে পুলিশের স্ত্রীর লাশ উদ্ধার

চুয়াডাংগা প্রতিনিধি : চুয়াডাঙ্গা পুলিশ লাইন আবাসিক কোয়ার্টার থেকে শান্তা বেগম (২২) নামে এক পুলিশ সদস্যের স্ত্রীর লাশ উদ্ধার করা হয়েছে। গতকাল শনিবার ভোরে তার লাশ উদ্ধার করা হয়। তিনি পুলিশ কনস্টেবল হেলাল পারভেজের স্ত্রী।
পুলিশ জানায়, ভোরের দিকে পুলিশ লাইন চত্বরের বাসা থেকে শান্তা বেগমের গলায় ফাঁস দেওয়া ঝুলন্ত দেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর তাকে সদর হাসপাতালে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন। শান্তার বাবা জিবলু গাজী জানান, প্রায় পাঁচ বছর আগে শান্তার সঙ্গে শ্রীপুর উপজেলার ছাবিনগর গ্রামের নোয়াবুল ইসলামের ছেলে হেলাল পারভেজের বিয়ে হয়। বিয়ের পর তাদের দাম্পত্য জীবনে সাত মাস বয়সী একটি মেয়ে সন্তান আছে। কনস্টেবল হেলাল কয়েকমাস ধরে পরকীয়া করতে থাকায় তাদের দাম্পত্য জীবনে অশান্তি দেখা দেয়। বিষয়টি নিয়ে একমাস আগে পারিবারিকভাবে সালিস বৈঠকও হয়। শান্তার আত্মীয় স্বজনদের দাবি, শান্তার মৃত্যুর পেছনে স্বামী হেলালের পরকীয়া দায়ী।অতিরিক্ত পুলিশ সুপার গোলাম বেনজীর জানান, তিনি ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সদর হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। এ ঘটনায় সদর থানায় একটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।