ডিআইজি ও এসপিকে দুদকের দায়মুক্তি

বিপুল পরিমাণ অবৈধ সম্পদ অর্জনের অভিযোগ থেকে পুলিশের একজন উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) ও একজন পুলিশ সুপারকে (এসপি) দায়মুক্তি দিয়েছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।সোমবার আলাদা চিঠির মাধ্যমে দুদক সচিব মাকসুদুল হাসান খান পুলিশের দুই ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তার অব্যাহতির বিষয়টি মন্ত্রিপরিষদ সচিবকে জানিয়েছেন।অব্যাহতি পাওয়া পুলিশের দুই কর্মকর্তা হলেন- পুলিশের বিশেষ শাখার (এসবি) ডিআইজি (প্রোটেকশন) রফিকুল ইসলাম এবং বাগেরহাটের সাবেক এসপি ও বর্তমানে পুলিশের রেঞ্জ রিজার্ভ ফোর্সের (আরআরএফ) কমান্ড্যান্ট মিজানুর রহমান।সরকারের বিভিন্ন দপ্তর ও দুদকের ওয়েবসাইটেও অব্যাহতির চিঠির অনুলিপি দেয়া হয়েছে।এতে বলা হয়, তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ নথিভুক্ত করার মাধ্যমে এর নিষ্পত্তি করা হয়েছে।দুদক সূত্র জানায়, চাকরিতে থাকা অবস্থায় ক্ষমতার অপব্যবহার করে শত কোটি টাকার সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ডিআইজি রফিকুল ইসলামের বিরুদ্ধে ২০১৪ সালের ডিসেম্বরে অনুসন্ধানে নামে দুদক।অভিযোগে জানানো হয়, চাকরিতে যোগ দেওয়ার সময় রফিকুল ইসলামের ময়মনসিংহের ফুলবাড়িয়া বাজারে সরকারি খাস জমিতে একটি টিনশেড বাড়ি ছাড়া কিছু ছিল না। অথচ চাকরি জীবনে তিনি অর্ধশত কোটি টাকার সম্পদের মালিক হন।