পাইকগাছায় মৌসুমি নিম্নচাপে জনজীবন বিপর্যস্ত

প্রতিনিধি (পাইকগাছা) খুলনা : মৌসুমি নিম্নচাপের প্রভাবে উপকূলীয় খুলনার পাইকগাছায় ভারি ও মাঝারী বৃষ্টিপাতে জনজীবন বিপর্যস্ত হয়ে পড়েছে। নিচু এলাকা তলিয়ে এবং রাস্তাঘাটে পানি জমে চলাচল বিঘিœতসহ ব্যাহত হচ্ছে স্বাভাবিক কার্যক্রম। উল্লেখ্য, চলতি মৌসুমে বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপ সৃষ্টি হওয়ায় এর প্রভাবে সুন্দরবন সংলগ্ন উপকূলীয় পাইকগাছায় গত কয়েকদিন ধরে ভারি এবং মাঝারী আকারে বৃষ্টিপাত হয়। সোমবার সকাল থেকে বিরামহীন বৃষ্টিপাতে অধিকাংশ নিচু এলাকা তলিয়ে যায়। এতে মারাত্মক ক্ষতির সম্মুখীন হয় সবজির ক্ষেত। টানা এ বর্ষণ রোজাদারদের জন্য শুভ হলেও সাধারণ মানুষের দৈনন্দিন কার্যক্রম মারাত্মকভাবে ব্যাহত হয়। বিশেষ করে, শ্রমজীবী মানুষদেরকে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়তে হয়। সোমবার সকাল থেকে ভারি বৃষ্টিপাতের ফলে অধিকাংশ শ্রমিকরা কাজে বের হতে পারেননি বলে জানিয়েছে। এদিকে সৃষ্ট নিম্নচাপের প্রভাবে আবহাওয়া অধিদপ্তর মংলা সমুদ্র বন্দর সমূহ এলাকায় ৩নং সতর্কতা সংকেত জারি করেছে।

                                           পাইকগাছায় বিদ্যালয়ের অবৈধ কমিটি বাতিল : এলাকায় মিষ্টি বিতরণ

প্রতিনিধি (পাইকগাছা) খুলনা : খুলনার পাইকগাছার আমুরকাটা রংধনু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের অবৈধ কমিটি বাতিল করা হয়েছে। মানবাধিকার উন্নয়ন কেন্দ্রের লিগ্যাল নোটিশের প্রেক্ষিতে শিক্ষা বোর্ড, যশোর কর্তৃপক্ষ এক আদেশে পূর্বের জারীকৃত স্মারকপত্র প্রত্যাহার করার মাধ্যমে ৬ বছরের কমিটি বিলুপ্ত হয়। এ ঘটনায় এলাকায় মিষ্টি বিতরণ করা হয়েছে। প্রাপ্ত সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার সোলাদানা ইউনিয়নের আমুরকাটা রংধনু মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ২০০৯-১০ সালের নির্বাচিত কমিটির মেয়াদ থাকাবস্থায় পূর্বের কমিটির আবেদনের প্রেক্ষিতে বোর্ড কর্তৃপক্ষ বৈধ কমিটি ভেঙে দিয়ে নতুন কমিটি গঠণের এক আদেশ দেয়। বোর্ডের এ আদেশকে চ্যালেঞ্জ করে বিদ্যালয়ের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য শিখা রানি ম-ল মহামান্য হাইকোর্টে ৫৪৫১/২০১০ নং একটি রিট পিটিশন মামলা করেন। মামলায় বিজ্ঞ আদালত বোর্ড চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে ৪ সপ্তাহের রুল নিশি জারি করেন এবং বোর্ড আদেশ ৬ মাসের জন্য স্থগিত ঘোষণা করেন। আদালতের এ নির্দেশনাকে পুঁজি করে এবং বোর্ডকে ব্যবহার করে বিদ্যালয়ের সুচতুর সভাপতি অজিত কুমার সরকার দীর্ঘ ৬ বছর অবৈধভাবে ম্যানেজিং কমিটির সভাপতির দায়িত্ব পালন করে আসছেন। তিনি মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান কমিটি বহাল থাকবে মর্মে যশোর শিক্ষা বোর্ডের মাধ্যমে ২৮/০৪/২০১৫ তারিখের বিঅ-৬/৬৭৬৯/৩৭৮ নং স্মারকে একটি আদেশ করান। ইতোমধ্যে তিনি অবৈধ পন্থায় অসংখ্য নিয়োগ দিয়ে মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নিয়েছেন। বিষয়টি কয়েকটি পত্রিকায় খবর প্রকাশের পর পাইকগাছা মানবাধিকার উন্নয়ন কেন্দ্রের পক্ষে এ্যাড. এফ.এম.এ রাজ্জাক বর্তমান কমিটি অবৈধ পন্থায় কার্যক্রম পরিচালনা করে আসছে মর্মে বোর্ড চেয়ারম্যানসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষকে গত ২৮/০৫/২০১৫ ইং তারিখে লিগ্যাল নোটিশ প্রদান করেন। নোটিশ প্রাপ্তির পর গত ১৭/০৬/২০১৫ ইং তারিখ মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড, যশোরের বিদ্যালয় পরিদর্শক ড. মো. আহসান হাবীব স্বাক্ষরিত বিঅ-৬/৩৭০৯ স্মারকের এক আদেশে মামলা নিষ্পত্তি না হওয়া পর্যন্ত বর্তমান কমিটি বহাল থাকবে মর্মে পূর্বের বিঅ-৬/৬৭৬৯/৩৭৮ স্মারকের আদেশটি প্রত্যাহার করে নেন। একই সাথে ৫৪৫১/২০১০ নং রিট পিটিশন মামলার সর্বশেষ অবস্থা ৩ কর্মদিবসের মধ্যে বিদ্যালয় পরিদর্শককে অবহিত করার জন্য প্রধান শিক্ষককে ও সদস্য সচিবকে বলা হয়েছে। একই পত্রে পরবর্তী কমিটি গঠণ না হওয়া পর্যন্ত শিক্ষক-কর্মচারীদের বেতনভাতা বিলসহ আনুসঙ্গিক ব্যয় নির্বাহ বিলে প্রতিস্বাক্ষরের জন্য উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে অনুরোধ করা হয়েছে। এ খবর এলাকায় ছড়িয়ে পড়ার পর সোমবার সকালে বিদ্যালয় সংশ্লিষ্ট আমুরকাটা বাজারে এলাকাবাসী মিষ্টি বিতরণ করেছে এবং স্লোগান দিতে থাকে- মিষ্টির বন্যায়, ভেসে যাবে সভাপতির যত অন্যায়।