গৌরীপুরে অগ্নিকান্ড পুড়ে গেছে কোটি টাকার মালামাল আহত ১৫

নিজস্ব সংবাদদাতা কুমিল্লা : কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলা গৌরীপুরে সিলিন্ডার বিস্ফোরণে এক ভয়াবহ অগ্নিকান্ডের ঘটনা ঘটে। মঙ্গলবার রাত ৮টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। এতে ২টি ফ্রিজের দোকানসহ ৮টি দোকানের প্রায় কোটি টাকার মালামাল পুড়ে যায়। এ অগ্নিকা-ে ১৫ জন মারাত্মকভাবে আহত হয়েছে। আহতদের উদ্ধার করে গৌরীপুর হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হয়। আহতদের মধ্যে সৌদিয়া রেফ্রিজেটর এর মালিকের মেয়ের জামাই মো. সাদ্দাম হোসেন (২৬) সহ ৬ জনকে আশংকাজনক অবস্থায় ঢাকা প্রেরণ করা হয়েছে। বাকীদের গৌরীপুর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ জানায়, উপজেলার গৌরীপুর বাজারে কুমিল্লা পল্লী বিদ্যুৎ সমিতি-৩ এর জোনাল অফিসের সামনে সৌদিয়া রেফ্রিজেটর দোকানে বিদ্যুতিক শর্ট শার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটলে মুহুর্তের মধ্যে আগুন আশে পার্শের দোকানে ছড়িয়ে পড়ে। এ সময় গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণ হয়ে মো. সাদ্দাম হোসেন সহ বেশ কয়েকজনের শরীল ক্ষত-বিক্ষত হয়ে যায়। স্থানীয়রা তাদের উদ্ধার করে গৌরীপুর হাসপাতালে পৌছায়। খবর পেয়ে দাউদকান্দি ও হোমনা ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট, দাউদকান্দি মডেল থানা পুলিশ ও গৌরীপুর ফাঁড়ি পুলিশ প্রায় দুই ঘণ্টা চেষ্টা চালিয়ে রাত ৯ টায় আগুন নিয়ন্ত্রেণে আনে। রাতেই গুরুতর আহত সাদ্দাম হোসেনের বাড়িতে ছুটে যান দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান, উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোহাম্মদ মাসুদুর রহমান মোল্লা, দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আবু সালাম মিয়া, দাউদকান্দি প্রেস কাবের সাধারণ সম্পাদক মো. জাকির হোসেন হাজারী ও সাংগঠনিক সম্পাদক মো. আলমগীর হোসেন। অগ্ন্কিান্ডে আশংকাজন অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা সাদ্দাম হোসেনের মা’য়ের হাতে কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের পক্ষে দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মুহাম্মদ আসাদুজ্জামান নগদ ২০ হাজার টাকা এবং কুমিল্লা পুলিশ সুপারের পক্ষে দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আবু সালাম মিয়া নগদ ১০ টাকা প্রদান করেন। এর আগে তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। অগ্নিকান্ডের কারণে প্রায় ১ ঘণ্টা ঢাকা- গৌরীপুর- হোমনা সড়কে যানবাহন চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। বিদ্যুৎ উপ-কেন্দ্রের পাশ ঘেষে অগ্নিকান্ডের ফলে বন্ধ করে দেওয়া হয় বিদ্যুৎ সরবরাহ। প্রায় একটানা ৩ ঘণ্টা বিদ্যুৎ সরবরাহ বন্ধ থাকায় পর রাত ১১ টায় বিদ্যুৎ সরবরাহ চালু হয়। তবে দুঘর্টনা এড়াতে আগে থেকে সর্বচ্চো সর্তক অবস্থায় ছিল বিদ্যুৎ কর্তৃপক্ষ। দাউদকান্দির গৌরীপুর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্্েরর টিএইচও ডাঃ কাজি শামীম হোসেন জানান, অগ্নিকা-ে আহত ৯ জনকে জরুরি বিভাগে চিকিৎসা দেওয়া হয়। এর মধ্যে ৬ জনকে আশংকাজন অবস্থায় ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। দাউদকান্দি মডেল থানার ওসি মোহাম্মদ আবু সালাম মিয়া জানান, আহতদের গৌরীপুর হাসপাতালে প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে ঢাকায় প্রেরণ করা হয়েছে। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে বিদ্যুতিক শর্ট শার্কিট থেকে আগুনের সূত্রপাত। পুলিশি তদন্ত চলছে।