বগুড়ায় হিজরা ও কোতিদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরন

বগুড়া জেলা প্রতিনিধিঃ হোচিমিন। বগুড়ার সদরের বাসিন্দা। বর্তমানে ঢাকার একটি নামকরা বেসরকারি হাসপাতালে চাকুরী করছে। গ্রামে বসবাসের কারণে ছাত্রজীবন থেকেই সাধ্যমত সাহায্য করতো বিভিন্ন অভাবগ্রস্ত ব্যক্তিদের। ছোট থেকে সে লক্ষ্য করতো সমাজের বিছিন্ন জনগোষ্ঠী নামে পরিচিত হিজরারা লিঙ্গ বৈষম্যের শিকার হচ্ছে প্রতিনিয়ত।
অপমানিত হচ্ছে শারিরীক ও মানসিকভাবে। হোচিমিনের তখন থেকেই ইচ্ছা জাগে হিজরা সম্প্রদায়ের জন্য কিছু করার। তারপর থেকে সে মনোনিবেশ করে ট্রান্সজেন্ডার হিজরা ও কোতিদের জীবনমান উন্নয়নে। তাদের সাবলম্বী করতে নিজ উদ্দ্যেগে বিভিন্ন সময় বাড়িয়ে দিয়েছে সাহায্যের হাত। ঈদ পার্বনে উপহার দিয়েছে নতুন কাপড়। চলতি করোনার প্রভাবে কর্মহীন হিজরা, ট্রান্সজেন্ডার ও কোতিদের মাঝে হোচিমিন ও তার বন্ধু তাসনুভার অর্থায়ন ও সহযোগীতায় বিতরন করছে খাদ্যসামগ্রী।
ঢাকার জুরাইন, বাড্ডা, পুরান ঢাকা, মানিকগঞ্জ, বগুড়া, শাহজাহানপুর, টাংগাইল, রাজবাড়ি, ময়মনসিংহ, মৌলভীবাজার ও কুষ্টিয়া জেলার মোট ৭ শত হিজরা ট্রান্সজেন্ডার ও কোতিদের মাঝে পর্যায়ক্রমে খাদ্যসামগ্রী বিতরন করেছেন জেন্ডার নিয়ে কাজ করা তরুণ এই সমাজসেবক। খাবার সামগ্রীর মধ্য রয়েছে চাল, আলু, মসুর ডাল, তেল, পেয়াজ ও মরিচ। এরই ধারাবিকতায় বগুড়ার বারপুরে ৫ জন হিজরা ও কোতিদের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরন করা হয়।
প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে খাবার বিতরন করেন নিশিন্দারা ইউনিয়ন পরিষদের ইউপি সদস্যা স্বপ্না বেগম। প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, এটি একটি মহৎ উদ্দ্যেগ। অর্থদাতাদের ধন্যবাদ পাশাপাশি যারা সহযোগীতা করেছেন। আমাদের  হিজরা সম্প্রদায়কে ভাল নজরে দেখা উচিত। তাদের ভাল কাজে উৎসাহ দেয়া উচিৎ”।
এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন নিশিন্দারা ইউনিয়ন কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সাধারণ সম্পাদক শাফায়াত সজল, বিশিষ্ট সমাজ সেবক তরিকুল ইসলাম, কমিউনিটি পুলিশিং ফোরামের সদস্য রিদয় হাসান সজল, জয় চৌধুরী প্রমুখ।