নামুজায় জিনের বাদশার খপ্পড়ে পড়ে বিকাশে টাকা দিয়ে প্রতারণার শিকার

আনোয়ার হোসেন, নামুজা (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়া সদরের নামুজায় জিনের বাদশার খপ্পড়ে পড়ে বিকাশে টাকা দিয়ে প্রতারণার শিকার হয়েছে এক শিক্ষার্থী। স্থানীয় একাধিক বিশ্বস্ত সূত্রে জানা যায়, নামুজা বন্দরে নিউ মা মটরস এর বিকাশ এজেন্টের দোকানে গত সোমবার (১২ মে) দুপুরে নামুজা বন্দরে এই ঘটনাটি ঘটে। বিবরণে প্রকাশ, পাশ্ববর্তী শিবগঞ্জ উপজেলার পিরব ইউপির সিহালী মাষ্টর পাড়া গ্রামের সিরাজুল ইসলামের পুত্র মোঃ তাববিদ হোসেন শিক্ষার্থী জিনের বাদশার প্রতারণার ফাঁদে পড়ে অর্থ হারিয়েছেন। তাববিদ হোসেন জিনের বাদশার খপ্পড়ে পড়ে প্রথমে ০১৩১৯-৪৮২৩৭২ নম্বরে ৯৮০০ টাকা বিকাশে পাঠায়। এর কিছুক্ষণ পর আবাও দ্বিতীয় ধাপে ০১৪০৮-৯৩০২৩২ নম্বরে ৮২০০ টাকা বিকাশে পাঠায়। এর কিছুক্ষণ পর আবাও ৫০ হাজার টাকা পাঠাতে বললে, বিকাশ এজেন্ট সেলিম তাববিদ হোসেনের নিকট সমদয় টাকা বুঝে চায়। এসময় তাববিদ হোসেন টাকা না দিয়ে বিভিন্ন কথাবার্তা বলতে থাকে। তাববিদ হোসেনের কথায় ক্ষিপ্ত হয়ে বিকাশ এজেন্ট সেলিম ও তার লোকজন মিলে শিকল দিয়ে বেধে রাখে ও মারপিট করে। এ সংবাদ তাববিদ হোসেনের বাড়ী পৌছিলে লোকজন এসে বিকাশ এজেন্ট কে জানায়, তাববিদ হোসেন জিনের বাদশার প্রতারণার শিকার হয়েছে। এসময় নগদে ১০ হাজার টাকা বিকাশ এজেন্টকে দিয়ে তাববিদকে পরিবারের লোকজন নিয়ে যায়। উল্লেখ্য যে, এরকম জিনের বাদশার নিকট প্রতারণার ঘটনা নামুজা সহ দেশে অহরহ ঘটছে। সচেতন মহল মনে করেন প্রশাসনের নজরদারী জোরালো করা ও বিকাশ এজেন্ট যদি লোক বুঝে টাকা আগে বুঝে নিতো বা এ পরিবারের লোকদের সঙ্গে কথ বলত তাহলে এরুপ প্রতারণার ঘটনা কমে যাবে বলে মনে করেন।