বগুড়ার শেরপুরে অসহায় পরিবারের পাশে দাঁড়ালেন শিক্ষার্থীরা

শেরপুর (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার শেরপুর উপজেলায় প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে প্রশাসনের পাশাপাশি বিভিন্ন ব্যক্তি-প্রতিষ্ঠান,নিম্ন আয়ের খেটে-খাওয়া মানষের জীবনযাপনের কথা বিবেচনা করে তাদের পাশে এসে দাড়িয়েছে। সেদিক থেকে পিছিয়ে নেই সরকারি ডিজে মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের ‘এস এসসি ব্যাস ১৯৯৯ পরিবার’। গতকাল মঙ্গলবার সকাল থেকে দিন ব্যাপি বিদ্যালয় প্রঙ্গণে সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিত করে শতাধীক পরিবারের মাঝে উপহার সামগ্রী হিসেবে খাবার প্যাকেট ও নগদ অর্থ বিতরণ করা হয়।
সরকারি ডিজে মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের এস এসসি ব্যাচ ১৯৯৯ এর ত্রান সহায়তার গল্পটা একটু ভিন্ন। এরা সবাই ছড়িয়ে আছে দেশ বিদেশের বিভিন্ন জায়গায়। অনেকের সাথে দেখাও হয়না প্রায় ১০ থেকে ১৫ বছর যাবৎ। মেসেঞ্জারে সবাই একত্রিত হয়ে, একে অন্যের খোঁজ খবর নেয়ার পর সবাই একমত হয়েছেন দরিদ্র-অসচ্ছল পরিবাদের জন্য কিছু একটা করবে। তাই তারা“মানবতার ব্যাগ ১৯৯৯ ব্যাচ”নামে একটি ফান্ড গঠন করে সেই অর্থ দিয়ে গোপনে ১১০ পরিবারের নামের লিস্ট করে যারা কোন জায়গা থেকে ত্রাণ পাননি অথবা যারা খুবই অসহায় পরিবার। এমন দরিদ্র-অসচ্ছল পরিবারের হাতে বিভিন্ন ধরণের প্রয়োজনীয় খাদ্যসামগ্রী,সাবান,মাস্ক ও শিশু খাদ্যের জন্য নগদ ৩শত টাকা তুলে দেন।
ত্রাণ সামগ্রী বিতরণের সময় উপস্থিত ছিলেন শেরপুর সরকারি ডিজে মডেল উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আখতার উদ্দিন বিপ্লব এবং শিক্ষার্থী ৯৯ ব্যাচ এর পক্ষ থেকে উপস্থিত থাকেন,নাহিদ, জাকির,ডা:আবু,জাফর,রবিন,লায়ন,মাহাবুব,সজীব,লেলিন,সোহেল,কামাল,বুলবুল,রাজীবুল,হান্নান,
রজব,এর্নাজী প্রমুখ সহ আরো অনেকে।এসময় তারা ত্রাণ বিতরণের পাশাপাশি করোনার বিরুদ্ধে সচেতনতামূলক প্রচারণাও চালান।

সর্বশেষ সংবাদ