করোনা ভাইরাস: অসহায় মানুষের বাড়ি বাড়ি ফারুকের ত্রাণ নিয়ে আতাউর

সারোয়ার হোসেন, তানোর: রাজশাহী-১(তানোর-গোদাগাড়ী) আসনের জনপ্রিয় এমপি সাবেক শিল্প প্রতিমন্ত্রী ও জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ওমর ফারুক চৌধুরীর পক্ষ থেকে অসহায় দরিদ্র মানুষের বাড়ি বাড়ি ত্রাণ সামগ্রী নিয়ে প্রতিনিয়ত ছুটে চলেছেন কলমা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহসভাপতি প্রবীণ নেতা আতাউর রহমান। আতাউর রহমান প্রতিদিন কলমা ইউনিয়নের প্রতিটি গ্রামে ঘুরে ঘুরে অসহায় দরিদ্র পরিবার গুলোর খোজ খবর নিয়ে তাদের মাঝে এমপির নিজ তহবিলের ত্রাণ সামগ্রী তুলে দিচ্ছেন তিনি। আতাউর রহমান বলেন, আমরা আওয়ামী লীগ, যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা দিনরাত এসব খাদ্য সামগ্রী এমপির পক্ষ থেকে অসহায় হতদরিদ্র পরিবারের মাঝে বাড়ি বাড়ি গিয়ে পৌঁছে দিচ্ছি।
জানা গেছে, বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়া মহামারি করোনা ভাইরাসকে ঘিরে প্রশাসনের পক্ষ থেকে জনসাধারণকে বাড়ি হতে বের না হওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়ায় মধ্যেবৃত্ত ও নিম্নবৃত্ত পরিবার গুলো প্রায় স্থবির হয়ে পড়েছে। যার ফলে এসব পরিবার গুলো খাদ্য সংকটে পড়ে পরিবার পরিজন নিয়ে চরম দুর্দশার মধ্যে থাকতে না হয় সেজন্য এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর নিজ তহবিল থেকে প্রতিদিন তাদের পরিবারে খাদ্য সামগ্রী সরবরাহ করা হচ্ছে। আর এইসব খাদ্য সামগ্রী এমপির পক্ষ থেকে তানোর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশিদ ময়নাসহ আওয়ামী লীগের অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীরা অসহায় হতদরিদ্র মানুষের মাঝে পৌঁছে দিচ্ছেন। এতে করে এমপি ওমর ফারুক চৌধুরীর পক্ষ থেকে ত্রাণ বিতরণ কার্যক্রম অব্যহত রাখায় সস্তি পাচ্ছে অসহায় হতদরিদ্র পরিবার গুলো।
তানোর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান লুৎফর হায়দার রশীদ ময়না বলেন,বর্তমানে দেশে করোনা ভাইরাস সংক্রমণের হাত থেকে নিজেকে ও পরিবারের সদস্যদের বাঁচাতে সবাই ঘর বন্দি হয়ে পড়েছে। এমনকি জনসাধারণের কাজ কর্ম পর্যন্ত বন্ধ হয়ে পড়েছে। যার ফলে বেশি বিপদে পড়েছে নিম্ন আয়ের খেটে খাওয়া সাধারণ মানুষ। তারা না পারছেন বাড়ির বাহিরে যেতে না পারছেন কাজ কর্ম করতে। যদি তারা কাজ কর্ম করতে না পারে তাহলে পরিবার পরিজন নিয়ে বাঁচবে কি ভাবে। এতে করে হঠাৎ করে আশা মহামারি করোনা ভাইরাসের জন্য  চরম হতাশ হয়ে পড়েছে খেটে খাওয়া নিম্ন আয়ের ছিন্নমূল মানুষরা গুলো। ঠিক তখনই তাদের মুখে দুমুঠো খাবার তুলে দিতে হাজির হয়েছেন বরেন্দ্র অঞ্চলের পোড়া মাটির সন্তান ওমর ফারুক চৌধুরী এমপি।

সর্বশেষ সংবাদ