বগুড়ায় হকার্স মার্কেট শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বন্ধের ঘোষনা দেয়া হয়নি

রাজিবুল ইসলাম,বগুড়া থেকে: বগুড়ায় এবার করোনা ভাইরাস সংক্রামন রোধে এবং সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি না মানায় শহরের হকার্স মার্কেটটিকে বিশেষ নজরদারীতে রাখা হচ্ছে। যে কোন মুহুর্তে মার্কেটটি বন্ধ ঘোষণা করা হতে পারে এমন কথা শোনা গেলেও মার্কেটটি আনুষ্ঠানিক ভাবে বন্ধ করা হয়নি। গতকাল বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনের পক্ষে মার্কেটটি পরিদর্শনে গেলে সেখানে তুঘলোকি ঘটনা ঘটে।
গতকাল বৃহস্পতিবার দুপুরে আনুষ্ঠানিক ভাবে মার্কেটটি বন্ধ ঘোষনা না করা হলেও জেলা প্রশাসনের পরিদর্শন টিম সেখানে গেলে সেখানকার ব্যবসায়ীরা হাওয়া হয়ে যায় ।
এর আগের দিন বুধবার একই কারনে বগুড়া শহরের আদি ও পুরাতন নিউ মার্কেট অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয় । এ ঘটনার পর শহরের অন্যন্য বিপনী বিতানগুলি জেলা প্রশাসনের বিশেষ নজরদারীতে রাখা হয়েছে এমন কথা জনিয়ে জেলা প্রশাসক মুহা ঃ ফয়েজ আহাম্মদ জানিয়েছিলেন, সামাজিক দুরত্ব ও ‘স্বাস্থ্যবিধি না মানা হলে প্রয়োজনে সব কটি মার্কেট বিপনী বিতান বন্ধ করে দেয়া হবে।
করোনা ভাইরাসের সংক্রামন রোধে আসন্ন পবিত্র ঈদকে উপলক্ষ করে সব শ্রেণীপেশার মানুষ নিরাপত্তা ও শারীরিক দূরত্ব বজায় না রেখে বিপদজনক ভাবে বিভিন্ন মার্কেটে সমবেত হতে থাকে যে কারনে বগুড়ার জেলা প্রশাসক ফয়েজ আহাম্মদ এর নের্তৃতে একটি পরিদর্শন টিম মার্কেটটি পরিদর্শন করেন।

পরে পূর্ব আভাস বএবং বগুড়া নিউমর্কেটের পর শহরের হর্কাস মাকেটের কর্তৃপক্ষে সামাজিক দুরত্ব রোধে ব্যবস্থা গ্রহনে দায় শিকার করার প্রেক্ষিতে এবং স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলার সর্ত মেনে চলার অঙ্গিকার করায় বৃহস্পতিবার মার্কেটটি বন্ধ ঘোষনা করেননি।
সরকারী স্বাস্থ্য বিধি ও সামজিক দুরত্ব বজায় রাখার ব্যবস্থা না থাকলে যে কোন মার্কেট ,বিপনী বিতান বন্ধ ঘোষনা করা হবে বলে জানান জেলা প্রশাসন ।
এর আগে পরিদর্শন টিম শহরে বিপনী বিতান রানার প্লাজা পরিদর্শন করেন । পরে জেলার অধিকর্তা স্থানীয় বাজার মনিটরিং করেন।