বড়াইগ্রামে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে পিতা-পুত্র সহ চার জন কে কুপিয়ে জখম করেছে প্রতিপক্ষ

বড়াইগ্রামে তুচ্ছ ঘটনায় পিতা-পুত্রসহ চারজনকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে আহত করেছে প্রতিপক্ষরা। আহতদের মধ্যে একজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে।
জানা যায়, সোমবার সকালে উপজেলার আটঘরিয়া গ্রামে দুটি বাচ্চা ছেলের মধ্যে ঝগড়া বাঁধে। এ সময় একটি শিশুর চাচা গোলাম মোস্তফা সেখানে আসেন এবং দুজনকেই হাল্কা চড়-থাপ্পড় দিয়ে বাড়িতে পাঠিয়ে দেন। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে অপর শিশুর বড় ভাই আটঘরিয়া গ্রামের ইমরান হোসেনের ছেলে হিমেল লাঠি দিয়ে গোলাম মোস্তফা (৩১) কে মারপিট করে। পরে গোলাম মোস্তফা বিষয়টি গ্রাম প্রধানদের জানান। এতে আরও ক্ষিপ্ত হয়ে হিমেল, তার চাচা শাহজাহান আলী ও চাচাতো ভাইয়েরা রাস্তায় ওৎ পেতে থাকে। রাত আটটার দিকে কাজ শেষে বাড়ি ফেরার পথে তারা গোলাম মোস্তফার ভাই শফিউল্লাহ (৩২) কে কুপিয়ে জখম করে। খবর পেয়ে তাকে উদ্ধারে এগিয়ে গেলে তারা শফিউল্লাহর পিতা আব্দুল মান্নান (৮০), ছোট ভাই শাহীন (২২) ও চাচাতো ভাই শফিকুল ইসলাম (৪২) কেও এলোপাথাড়ি কুপিয়ে ও হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে জখম করে। পরে স্থানীয়রা এগিয়ে এসে তাদেরকে উদ্ধার করে বনপাড়া পাটোয়ারী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করেন।
এ ব্যাপারে বড়াইগ্রাম থানার দিলীপ কুমার দাস জানান, বিষয়টি শুনেছি। বর্তমানে পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে। অভিযোগ পেলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

সর্বশেষ সংবাদ