বগুড়ার গাবতলীতে ইউপি সদস্যের নেতৃত্বে বসতবাড়ীতে হামলা ভাংচর লুটপাট, দুইজন গুরুত্বর আহত

বগুড়ায় একদল সন্ত্রাসী হামলা চালিয়ে বাড়ী-ঘর ভাংচুরসহ লুটপাট চালিয়েছে। ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার রাতে বগুড়ার গাবতলী উপজেলার নাড়ুয়ামালা ইউনিয়নের মধ্যকাতুলী গ্রামে। এঘটনায় দুইজন মারাত্নকভাবে আহত হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে।
পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সুত্রে জানা গেছে, পুর্বশত্রুতার জের ধরে শুত্রবার রাত সাড়ে ৮ টার পরে নাড়ুয়ামালা ইউনিয়নের মধ্যকাতুলী দক্ষিন পাড়া গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মৃত এমাজ আলীর মেয়ে পারুল বেগমের বাড়ীতে নাড়ুয়ামালা ইউনিয়ন পরিষদের বর্তমান সদস্য মোফাজ্জল হোসেন আকন্দের নেতৃত্বে ফেরদৌস, মোফা, আরিফুল, এরশাদ, রঞ্জু, গফুর, মেন্টি, রাজু, সাইফুল, বাবলু, নুরু, শফিকুল, রহিদুলসহ ১৪/১৫ জনের দেশীয় অস্ত্রে-শস্ত্রে সজ্জিত একটি সন্ত্রাসী বাহিনী হামলা চালায়। হামলাকারীরা এসময় মোটর সাইকেল, টেলিভিশনসহ আসবাবপত্র ভাংচুর এবং নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার লুটপাট করে। বাঁধা দিতে গেলে রিপন ও নুরনবী নামের দুইজনকে কুপিয়ে জখম করা হয়। তাদের চিৎকারে আশেপাশের লোকজন এগিয়ে আসলে সন্ত্রাসীরা পালিয়ে যায়। এ ঘটনায় মধ্যকাতুলী দক্ষিনপাড়ার সাবেক ইউপি সদস্য মৃত এমাজ আলীর মেয়ে পারুল বেগম বাদী হয়ে গাবতলী থানায় এজাহার দায়ের করেছেন। গাবতলী থানা পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ব্যাপারে গাবতলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা নুরুজ্জামান জানান, ঘটনার খবর জানতে পেরে সেখানে ফোর্স পাঠানো হয়েছিলো। পারুল বেগম বাদী হয়ে একটি এজাহার দায়ের করেছেন। আরো বিস্তারিত জানতে সেখানে পুনরায় থানা থেকে প্রতিনিধি পাঠানো হয়েছে।

সর্বশেষ সংবাদ