কেরাম বোর্ড খেলার নামে চলছে জুয়ার জমজমাট আসর

বগুড়ার গাবতলী উপজেলার বালিয়াদীঘি ইউনিয়নের মালিয়ানডাঙ্গা পূর্বপাড়া ৫ নম্বর ওয়ার্ডের জনপ্রতিনিধির বাড়ি উঠোনে চলছে কেরাম বোর্ড খেলা নামে জুয়া জমজমাট আসর।
বিকাল থেকে শুরু করে গভীর রাত অব্দি বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষ এখানে টাকার বিনিময় খেলতে আসে। বিশেষ করে উঠতি বয়সী যুবকদের আনাগোনা সবচেয়ে বেশি ।
মোট চারটি কেরাম সেটে খেলা হয় প্রতিটা কেরাম একটি গেমের জন্য ৫০ টাকা ভাড়া নেন উক্ত জনপ্রতিনিধি । খেলোয়াড়রা বিভিন্ন পরিমাণের টাকা বাজি ধরে কেরাম খেলা। উক্ত খেলা কে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি ও হাতাহাতির মতো ঘটনা ঘটে।
সরজমিনে গিয়ে স্থানীয় লোকজনের সাথে কথা বললে তারা জানা যায় যে, চলমান মহামারী ও বৈশ্বিক অবস্থার কথা চিন্তা করলে দেখা যায় অনেক মানুষ বেকার ও অসহায় এর মধ্যে দিনযাপন করছে এতে করে তারা বিভিন্ন রকম জুয়া ও নেশায় আসক্ত হচ্ছে। আর এটাকে পুঁজি করে জমজমাট জুয়ার আসর বসিয়েছে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি । তার বাড়ির উঠানে বিকাল থেকে শুরু করে গভীর রাত পর্যন্ত মানুষের আনাগোনা থাকে এই খেলাকে কেন্দ্র করে। নিয়ম শৃঙ্খলা ও স্বাস্থ্যবিধির কোন নিয়মের তোয়াক্কা তারা করে না। স্থানীয় লোকজন বারবার নিষেধ করার পরেও তিনি কোনো নিষেধাজ্ঞা মানেননি। তিনি স্থানীয় জনপ্রতিনিধি হওয়াতে  অনেকের কথা তোয়াক্কা করে না।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক স্থানীয় একজন প্রবীণ ব্যক্তির সাথে কথা হলে তিনি জানান, বাপু হামরা তো এত কিছু বুঝিনা খালি দেখি আর শুনি এখানে অনেক লোক আসে হৈ-হুল্লোড় ও চিল্লাচিল্লি করে। শুনেছি ওখানে নাকি টেকা দিয়ে জুয়া খেলে। হামরা বুড়া মানুষ হামাকেরে নিষেধ কথা তারা শোনে না।

সর্বশেষ সংবাদ