তাড়াশে গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ

এ এইচ খোকন চলনবিল প্রতিনিধিঃসিরাজগঞ্জের তাড়াশে জাকিয়া খাতুন (১৯) নামের এক গৃহবধূকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগ উঠেছে। মঙ্গলবার উপজেলার দেশীগ্রাম ইউনিয়নের কর্ণঘোষ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।নিহত গৃহবধূ জাকিয়া সুলতানা কর্ণঘোষ গ্রামের রাশিদুল ইসলামের স্ত্রী।
নিহতের পরিবারের বরাতে পুলিশ জানায়, প্রায় বছর খানেক পুর্বে একই ইউনিয়নের আড়ংগাইল গ্রামের জফের আলীর মেয়ে জাকিয়া সুলতানার সঙ্গে কর্ণঘোষ গ্রামের আব্দুর রাজ্জাকের ছেলে রাশিদুল ইসলামের বিয়ে হয়। বিয়ের পর রাশিদুল বেশিরভাগ সময় কাজের জন্য বাইরে থাকায় বিভিন্ন সময়ে জাকিয়ার শ্বশুর আব্দুর রাজ্জাক ও শ্বাশুড়ি তাকে বিভিন্ন অজুহাতে নানাভাবে শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন করতো। এরই ধারাবাহিকতায় মঙ্গলবার ভোরে তার শ্বাশুড়ি জাকিয়াকে মাছ কাটার জন্য ঘুম থেকে ডেকে তোলেন। এ নিয়ে শ্বশুর ও পুত্রবধূর মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে শ্বশুর-শ্বাশুড়ি মিলে তাকে নির্যাতন করে। পরে সকাল ৭টার দিকে জাকিয়ার শ্বশুর বাড়ির লোকজন খবর দেয় জাকিয়া গলায় ওড়না পেঁচিয়ে আত্মহত্যা করেছে।
স্থানীয়রা জানান, পরে নিহত গৃহবধূ জাকিয়ার বিষয়টি মিটমাট করতে সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত দুই পক্ষের মধ্যে সালিশ হলেও মীমাংসা না হওয়ায় সন্ধ্যায় থানা পুলিশকে খবর দেওয়া হয়। খবর পেয়ে তাড়াশ থানা পুলিশ নিহত গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে।
এ প্রসঙ্গে তাড়াশ থানার ওসি মাহবুবুল আলম বলেন, জাকিয়ার লাশ ময়নাতদন্তের জন্য সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট শেখ ফজিলাতুন্নেসা মুুজিব হাসপাতালের মর্গে পাঠানোর প্রস্তুতি চলছে। গৃহবধূর মৃত্যুর ঘটনায় হত্যা ও নির্যাতনের মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

সর্বশেষ সংবাদ