গাবতলীতে কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় গ্রেফতার-১

গাবতলী (বগুড়া) প্রতিনিধি: বগুড়ার গাবতলীতে ১৩বছরের এক কিশোরী ধর্ষণের ঘটনায় পুলিশ ধর্ষকের সহযোগী জয়নাল আকন্দ (২০) নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে। গত বৃহস্পতিবার রাতে জয়নালকে তার বাড়ী হতে গ্রেফতার করে গতকাল শুক্রবার জেলহাজতে প্রেরণ করে।
জানা গেছে, গাবতলীর বালিয়াদিঘী গ্রামের ছহিম উদ্দিন ও জোবেদার নাতনী কিশোরী কন্যা গত বুধবার রাত পৌণে ৮টায় প্রকৃতির ডাকে সাড়া দিতে খোলা বাথরুমে যায়। সেখানে আগে থেকেই ওৎ পেতে থাকা ইলেট্রিক মিস্ত্রি শাহাদুল ইসলাম ও তার দুই বন্ধুর সহযোগিতায় মুখ বেঁধে জোরপূর্বক বাড়ীর পিছনে একটি পরিত্যক্ত ঘরে নিয়ে শাহাদুল ধর্ষণ করে। এ সময় প্রতিবেশীরা টের পেলে তাদেরকে ধরার চেষ্টা করলে ঐ ধর্ষক ও তার সহযোগী ৩জনই পালিয়ে যায়। সহযোগীরা হলো, একই গ্রামের আমিনুর সরকারের ছেলে বিপুল (১৯) এবং জাহিদুল আকন্দের ছেলে জয়নাল আকন্দ (২০)। ধর্ষিতা বগুড়া জেলার ধুনট থানাধীন এলাঙ্গী ইউনিয়নের বিল চাপড়ি গ্রামের মজনু মিয়ার কন্যা। ছহিম উদ্দিন ও জোবেদার নাতনী নানা-নানীর বাড়ীতে থেকেই বড় হয়। তার বাবা-মা ঢাকায় কর্ম করার কারণে কিশোরীর বড়ভাইসহ বগুড়া গাবতলীর বালিয়াদিঘী ইউনিয়নের কালাইহাটা দক্ষিণ বালুয়া খালপাড়া গ্রামে তার নানা-নানীর বাড়ীতে বসবাস করে আসছিল। এ ঘটনায় কিশোরীর বাবা মজনু মিয়া বাদী হয়ে তিনজনের নাম উল্লেখ করে গত সেপ্টেম্বর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করলে পুলিশ জয়নালকে গ্রেফতার করে।

সর্বশেষ সংবাদ