বগুড়ার ধুনটে প্রতিপক্ষ কর্তৃক ভূমিহীনদের ৫ বিঘা জমির রোপা আমন ধান কর্তন

স্টাফ রিপোর্টারঃ বগুড়ার ধুনটে ভূমিহীনদের ৫বিঘা জমির রোপা আমন ধান কেটে সেচ মেশিন চুরি করে নিয়ে গেছে প্রতিপক্ষ। এতে ওই ভূমিহীনদের প্রায় ৫লক্ষাধিক টাকার ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। এ বিষয়ে ভূমিহীন কৃষক নজরুল ইসলাম বাদী হয়ে ধুনট থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। অভিযোগ সূত্রে জানাগেছে, উপজেলার কালেরপাড়া ইউনিয়নের নিত্তিপোতা গ্রামের মৃত তমেজ উদ্দিনের পুত্র নজরুল ইসলাম ও তার দুলাভাই রুস্তম আলী পারলক্ষ্মীপুর মৌজায় জেএল নং-১৩, খাস খতিয়ান-০১, দাগ নং-১৩৫৭৪,২৩ ও ১৩৫৭৪,২৪ এ ১একর ৬০শতক ধানী জমি সরকার কর্তৃক ৯৯বছর মেয়াদী লিজ নিয়ে সেখানে জমির চারপাশে নানা প্রজাতির গাছপালা লাগানো ও ধান চাষ সহ বিভিন্ন ধরনের ফসলের চাষ করে আসছেন। পূর্ব শত্র“তার জের ধরে বুধবার রাতে প্রতিপক্ষের নিত্তিপোতা গ্রামের রমজান আলীর পুত্র শাহীন, কালেরপাড়া গ্রামের সাহেব আলীর পুত্র এরশাদ আলী, ধুলাউরি গ্রামের আয়াজ আলীর পুত্র সুবেল, নিত্তিপোতা গ্রামের মফি আকন্দের পুত্র গাজি ও রমজান, গাজির পুত্র রুবেল ও সোহেল রানা, রমজান আলীর পুত্র শহিদুল ইসলাম, মৃত এলাহী আকন্দের পুত্র সাহেব আলী, সাহেব আলীর পুত্র হরফ আলী, মৃত সিরাজ মন্ডলের পুত্র ফজল ও তার পুত্র আব্দুর রউফ, জলিলের পুত্র আনার হোসেন, গোসাইবাড়ী গ্রামের ইসমাইলের পুত্র ওমর আলী, বেল্লালের পুত্র সালাম ও জব্বার যোগসাজসে উপরোক্ত জমির সবগুলো রোপা আমন ধান কেটে সেখান থেকে সেচ মেশিন চুরি করে নিয়ে যায়। উল্লেখিত আসামীগণ ৭জুন’২০ইং ৯টার দিকে বাদীপক্ষের অনুপস্থিতির সুযোগে ওই জমির চারপাশ থেকে ১৯টি মোটা ইউক্যালিপ্টাস গাছ কেটে নিয়ে যায়। যার অনুমান মূল্য ২লাখ টাকা বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। গাছ কাটার সময় তারা জমিতে লাগানো ধান, পাট, সবজি সহ অন্যান্য ফসলাদি বিনষ্ট সহ সেচ মেশিন ও নলকূপ নষ্ট করে সেই সময় প্রায় ৩লাখ টাকার ক্ষতিসাধন করেছে। জমিজমা সংক্রান্ত, গাছ কর্তন ও ফসল বিনষ্টের বিষয়ে আদালতে দায়েরকৃত মামলা বিচারাধীন রয়েছে। মামলা করার পর থেকে প্রতিপক্ষের লোকজন তাদের বিভিন্ন ক্ষয়ক্ষতি সহ নানাভাবে ভয়ভীতি ও হুমকী প্রদান সহ হয়রানী করে আসছে। এ বিষয়ে অভিযোগের তদন্ত কর্মকর্তা ধুনট থানার এস,আই আনিছুর রহমান জানান, অভিযোগ হয়েছে তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সর্বশেষ সংবাদ