সারাদেশে অব্যাহত নারী নিযাতন, ধর্ষণের প্রতিবাদে বগুড়ায় বামজোটের প্রতিবাদ সমাবেশ অনুষ্ঠিত

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি:  আজ ০৬ অক্টোবর ২০২০ ইং বেলা ১২.০০ টায় বাম গণতান্ত্রিক জোট বগুড়া জেলার উদ্যোগে কেন্দ্রীয় কর্মসূচির অংশ হিসেবে ঢাকার মিছিলে পুলিশি বাধা ও লাঠিচার্জ, খুলনার বাসদ অফিসে পুলিশি তল্লাশী, বেগমগঞ্জের নারী লাঞ্চনা, সারাদেশে অব্যাহত নারী নির্যাতন-ধর্ষণের প্রতিবাদে সাতমাথায় মানবন্ধন সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশে সভাপতিত্ব করেন জোটের বগুড়া চেলা সমন্বয়ক অ্যাড সাইফুল ইসলাম পল্টু। বক্তব্য রাখেন, সিপিবি বগুড়া জেলা সভাপতি জিন্নাতুল ইসলাম, বাসদ জেলা সদস্য সচিব সাইফুজ্জামান টুটুল, গণসংহতি আন্দোলন জেলা সমন্বয়কারী আব্দুর রশিদ, সিপিবি সাধারণ সম্পাদক আমিনুল ফরিদ, বাদস নেতা দিলরুবা নূরী। সমাবেশ পরিচালনা করেন যুব ইউনিয়ন নেতা শাহনেওয়াজ কবির পাপ্পু।
সমাবেশে সভাপতির বক্তব্যে অ্যাড. সাইফুল ইসলাম পল্টু বলেন, “সোনালি আঁশ হিসেবে পরিচিত পাট, পাটচাষি, পাটকল নিয়ে সরকার ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। এই খাতটিকে সম্পূর্ণরূপে বেসরকারিকরণ করতে গণবিরোধী সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার বিরুদ্ধে গণতান্ত্রিক বাম জোটের গড়ে ওঠা গণতান্ত্রিক আন্দোলন নস্যাৎ করতে সরকার পুলিশ দিয়ে হয়রানি, হামলা, লাঠিচার্জ চালিয়ে সরকারের গণবিরোধী অবস্থান আরো স্পষ্ট করেছে। পুলিশকে লুটপাটকারীদের রক্ষক বানিয়ে ফেলেছে। যার কারণে পুলিশ জনগণের জীবনের নিরাপত্তা দিতে পারেনা। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি এমন পর্যায়ে চলে গেছে যে একের পর এক নারী নির্যাতন, ধর্ষণ-গণধর্ষণের ঘটনা ঘটছে কিন্তু তা নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না।” তিনি এই পরিস্থিতি থেকে উত্তরণ ঘটাতে গণতান্ত্রিক রাজনৈতিক চর্চা, বিচারহীনতার অপসংস্কৃতি বন্ধ করার দাবি জানান এবং দাবি আদায়ে জনগণকে ঐক্যবদ্ধ হওয়ার আহ্বান জানান।
সিপিবি জেলা সভাপতি জিন্নাতুল ইসলাম বলেন, “সরকার অন্যায়ভাবে যেমন পাটকল বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে তেমনি অন্যায়ভাবে পুলিশ দিয়ে পাটকল রক্ষার গণতান্ত্রিক আন্দোলনকে বাধাগ্রস্ত করছে। অন্যদিকে স্বাধীনতার প্রায় পঞ্চাশ বছর অতিক্রম করলেও নারীর মর্যাদা প্রতিষ্ঠা করতে পুরোপুরি ব্যর্থ হয়েছে।” তাই তিনি জনগণকে অধিকার ও মর্যাদা রক্ষার আন্দোলনকে বেগবান করার আহŸান জানান।
নেতৃবৃন্দ আরো বলেন, একদিকে বিচারহীনতা, অন্যদিকে সরকারি আশ্রয়ে-প্রশ্রয়ে অপরাধী বেপরোয়া হয়ে পড়েছে আর ভিক্টিম হয়ে পড়েছে কোণঠাসা। যার কারণে সামাজিক ন্যায়বিচর ব্যাহত হচ্ছে, মানুষের মানবিক মর্যাদা হুমকির মুখে। নেতৃবৃন্দ আন্দোলনকে বাধাগ্রস্ত করার তীব্র প্রতিবাদ জানান এবং নারীর প্রতি নিপীড়ন যেভাবে ক্রমাগত বৃদ্ধি পাচ্ছে তা বন্ধে অবিলম্বে অপরাধীদের বিচারের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানান।

সর্বশেষ সংবাদ