নন্দীগ্রামে নববধুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা, স্বামী শাশুড়ি আটক

বগুড়ার নন্দীগ্রামে নববধু স্বর্ণালী খাতুন (২০) কে শ্বাসরোধ করে হত্যা করার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনাটি ঘটে উপজেলার ৫নং ভাটগ্রাম ইউনিয়নের চাকলমা গ্রামে।
জানা গেছে, চাকলমা গ্রামের আব্দুল খালেকের ছেলে খায়রুল আলম (২২) পার্শ্ববর্তী কালিশ গ্রামের আনোয়ার হোসেনের মেয়ে স্বর্ণালী খাতুনকে ভালোবেসে গত ফেব্রুয়ারি মাসে বিবাহ করে সংসার জীবন শুরু করে। (১১ অক্টোবর) সকাল আনুমানিক ১০ টায় নববধু স্বর্ণালী খাতুন গলায় ফাঁস দিয়েছে এমন কথা ছড়িয়ে স্বামী, শ্বশুর ও শাশুড়ি উপজেলার বিজরুলস্থ উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত্যু বলে ঘোষণা করে। এরপর তারা সেখান থেকে পালিয়ে যায়।
এ খবর পেয়ে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ শওকত কবির পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে। পরে পুলিশ নববধু স্বর্ণালী খাতুনের স্বামী খায়রুল আলম ও শাশুড়ি নাদিরা বেগমকে আটক করে থানায় নিয়ে আসে। অপরদিকে নববধু স্বর্ণালী খাতুনের লাশ ময়না তদন্তের জন্য বগুড়া মর্গে প্রেরণ করে। ধারণা করা হচ্ছে তাকে মারপিট ও শ্বাসরোধ করে হত্যা করা হয়েছে।
এ বিষয়ে নন্দীগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি সার্বিক )শওকত কবির বলেছে, নিহত স্বর্ণালী খাতুনের শরীরে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। তার মৃত্যু খুব রহস্যজনক। বিষয়টি গুরুত্বের সাথে তদন্ত করা হচ্ছে।

সর্বশেষ সংবাদ