তানোরে স্বামী থাকার পরেও বিধবা ভাতা উত্তলন

সারোয়ার হোসেন,রাজশাহীঃ রাজশাহীর তানোরে স্বামী থাকার পরেও বিধবা ভাতার টাকা উত্তলন করে আসছেন হারেছা বেগম বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে।
অন্যদিকে হারেছার কাগজ পত্র যাচাই বাছাই না করে এ বিধবা ভাতার কার্ড করে দিয়েছে উপজেলা সমাজ সেবা অফিস বলেও অভিযোগ রয়েছে। এতে করে কাগজ পত্র যাচাই বাছাই না করে অবৈধ সুবিধা নিয়ে সমাজ সেবা অফিসের কর্মকর্তারা স্বামী থাকার পরেও মৃত বানিয়ে বিধবা ভাতার কার্ড করে দেয়ায় উপজেলা জুড়ে দেখা দিয়েছে চাঞ্চল্য ও বইছে সমালোচনার ঝড়। এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে, মুন্ডুমালা পৌরসভার ২নং ওয়ার্ড চিনাশো গ্রামে।
অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, মুন্ডুমালা পৌর এলাকার ২নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা আব্দুল মজিদের স্ত্রী হারেছাকে বিধবা সাজিয়ে এমন জঘন্য বিধবা ভাতার কার্ড করে দেয়া হয়েছে সংরক্ষিত আসনের মেম্বার রাফেয়া বেগম। যাহার কার্ডের তালিকা ৪৬ নম্বরে হারেছা বেগম বিধবা ভাতা উত্তলন করে আসছেন।
এতে করে এমন চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি জানাজানি হলে উপজেলা সমাজ সেবা অফিস জুড়ে দেখা দিয়েছে চাঞ্চল্য ও বিরাজ উত্তেজনা। বিষয়টি নিয়ে হারেছা বেগম বলেন, আমি এসবের কিছুই জানিনা,আমাকে মেম্বার রাফেয়া এ কার্ড করে দিয়েছে। এবং আমার ভাতার টাকা তিনিই উত্তলন করে দেন। ১,২,৩ নম্বর ওয়ার্ড সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলর রাফেয়া সব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন আমি এসবের কিছুই জানিনা, কে তাকে কার্ড করে দিয়েছে তাও আমি বলতে পারবোনা বলে এড়িয়ে জান।
তানোর উপজেলা সমাজ সেবা অফিসার মতিনূর রহমান জানান, এবিষয়ে আমার কিছু জানা নেই, যদি এইরকম হয়ে থাকে তাহলে তদন্ত সাপেক্ষে আইন গত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে তিনি জানান।

 

সর্বশেষ সংবাদ