যারা প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কটুক্তি করে,তাদের দাঁত ভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে-বগুড়ায় কামাল হোসেন

স্টাফ রিপোর্টার: বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সাংগঠনিক সম্পাদক (রাজশাহী বিভাগীয় দায়িত্ব প্রাপ্ত) এস.এম কামাল হোসেন বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশের অহংকার। তিনি প্রধানমন্ত্রী থাকলে দেশের মানুষ শান্তিতে থাকে। ভালো থাকে। কারন তিনি মানুষের জন্য, দেশের কল্যাণের জন্য রাজনীতি করেন। তিনি নিজের জন্য কোন কিছু করেননি। সারা জীবন এদেশের মানুষের জন্য নিজের জীবনকে উৎসর্গ করে কাজ করে যাচ্ছেন। আওয়ামী লীগ সরকার দেশ ও দেশের মানুষের পক্ষে লড়াই করে। আর বিএনপি দেশকে পিছিয়ে দিতে রাজনীতি করে।তিনি আরো বলেন, ১৯৭৫ সালে একটি কু-চক্রী মহল বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান সহ তার স্ব-পরিবারকে হত্যা করে আওয়ামীলীগ কে ধ্বংস করতে চেয়েছিল। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার যে স্বপ্ন সেটা নর্ষাত করতে চেয়েছিলো। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ অন্ধকার থেকে আলোর পথে ধাবিত হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলা গড়ার স্বপ্ন বাস্তবায়ন করতে তিনি দিন রাত অক্লান্ত পরিশ্রম করে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, যারা দেশে প্রধানমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কটুক্তি করে, ষড়যন্ত্র করে তাদের দাঁত ভাঙ্গা জবাব দেওয়া হবে। প্রতিটি এলাকায় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সচেতন থাকতে হবে যেন কেউ আওয়ামী লীগের বিরুদ্ধে ও দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র না করতে পারে। তিনি শনিবার বেলা ১১টায় বগুড়া জেলা শহরের সাতমাথায় মুজিব মঞ্চে পৌর আওয়ামীলীগ আয়োজনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে কটুক্তি ও দেশব্যাপী ধর্ষণের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ও সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে কথাগুলো বলেন। পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি রফি নেওয়াজ খান রবিন এর সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক আবু ওবায়দুল হাসান ববির পরিচালনায় সমাবেশে বিশেষ অতিথি ছিলেন বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনু, সাধারণ সম্পাদক রাগেবুল আহসান রিপু, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আসাদুর রহমান দুলু, জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি এড: মকবুল হোসেন মুকুল। উপস্থিত ছিলেন জেলা আওয়ামী লীগের সাবেক প্রচারও প্রকাশনা সম্পাদক সুলতান মাহমুদ খান রনি, সাবেক উপ প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আল রাজি জুয়েল, শহর আওয়ামীলীগের সাবেক যুগ্ম আহবায়ক মিজানুর রহমান বকুল, এ্যাডনিস বাবু তালুকদার, জেলা যুবলীগের সভাপতি শুভাশীষ পোদ্দার লিটন, জেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের সভাপতি সাজেদুর রহমান শাহিন, সহ সভাপতি গোলঅম হোসেন, জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি নাইমুর রাজ্জাক তিতাস, সাধারণ সম্পাদক অসিম কুমার রায়সহ জেলা ও পৌর আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।সমাবেশে পূর্বে পৌর এলঅকার বিভিন্ন ওয়ার্ড থেকে মিছিল নিয়ে সমাবেশস্থলে আসতে থাকে নেতা কর্মীরা। এসময় জয় বাংলা স্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে সাতমাথা এলাকা।