বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে বুকে লালন করে দেশসেবায় ব্রতী হতে হবে-বগুড়া জেলা প্রশাসক

স্টাফ রিপোর্টার: বগুড়া জেলা প্রশাসক মো: জিয়াউল হক বলেছেন, স্বাধীন এই বাংলাদেশের জন্যে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু ও তার পরিবারের আত্মত্যাগ এর কথা স্মরণ করেই সকলকে তার নিজ অবস্থান থেকে সোনার বাংলা গড়ায় ভূমিকা রাখতে হবে তবেই শিশু শেখ রাসেল এর রক্তের কিছুটা হলেও মূল্যায়ন আমরা বাঙ্গালি জাতি হিসেবে দিতে পারবো। আর সবচেয়ে বেশী গুরুত্ব দিতে হবে আমাদের শিশু ও তরুণ প্রজন্মের প্রতি যারা আগামীর সোনার বাংলার নেতৃত্ব দিবে।
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর কনিষ্ঠ পুত্র শেখ রাসেল এর ৫৬তম জন্মবার্ষিকী ২০২০ইং উপলক্ষে রবিবার বিকেলে বগুড়া জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের করতোয়া হলরুমে স্বাস্থ্যবিধি মেনে জেলা প্রশাসন ও বাংলাদেশ শিশু একাডেমী, বগুড়া আয়োজিত আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপোরোক্ত কথাগুলি বলেন। সভায় শিশু ও অভিভাবকদের উদ্দেশ্যে ডিসি জিয়াউল হক আরো বলেন, শিশুদের ছোট থেকেই বঙ্গবন্ধু ও বাংলাদেশের স্বাধীনতা সম্পর্কে অবগত করতে হবে। জানাতে হবে এই দেশকে স্বাধীন করতে গিয়ে ১৫ আগস্ট কিভাবে স্বপরিবারে হত্যা করা হয়েছিল জাতির পিতার পরিবারকে যেখানে রেহাই দেওয়া হয়নি ছোট্ট শিশু শেখ রাসেল কেও। এই স্বাধীনতা অর্জন করতে যে কষ্ট হয়েছে বর্তমানে সেই স্বাধীনতাকে রক্ষা করার ভার আমাদের বর্তমান প্রজন্মকেই নিতে হবে। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মাসুম আলী বেগ এর সভাপতিত্বে এবং জেলা শিশু বিষয়ক কর্মকর্তা শাহ মো: ইসাহাক আলীর সার্বিক ব্যবস্থাপনায় সভায় আরো বক্তব্য রাখেন দৈনিক করতোয়ার বার্তা সম্পাদক প্রদীপ ভট্টাচার্য্য শংকর, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা বগুড়া জেলা কমিটির সভাপতি গৌতম কুমার দাস এবং শিশু ও যুব সংগঠক সঞ্জু রায়। শিশু একাডেমীর চিত্রাঙ্কন প্রশিক্ষক মৌসুমী রহমানের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে এসময় উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার (গোপনীয়) আশরাফুর রহমান, বঙ্গবন্ধু শিশু কিশোর মেলা সদর উপজেলা শাখার সদস্য সচিব আসাদ হোসেন, শিশু সংগঠক যুবায়ের পিনু প্রমুখ। সভা পরবর্তী শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে ৬টি বিভাগে আয়োজিত চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ী ১৮ জন শিশুর হাতে পুরস্কার ও সনদপত্র তুলে দেন বগুড়া জেলা প্রশাসক জিয়াউল হক।

সর্বশেষ সংবাদ