নাইজারে দুই গ্রামে গণহত্যা, মৃত শতাধিক

পশ্চিম নাইজারের দুইটি গ্রামে গণহত্যা চালালো সশস্ত্র বাইক-বাহিনী। তাদের আক্রমণে শতাধিক গ্রামবাসী মারা গেছেন।

পশ্চিম নাইজারের জিহাদি-অধ্যুষিত টিলাবেরি এলাকার গ্রাম তিচোমা বাঙ্গাউ এবং জারৌমাডারআই। সেখানেই শখানেক মোটরবাইক নিয়ে হামলা চালাল আক্রমণকারীরা। স্থানীয় মেয়র আলমউ হাসানে জানিয়েছেন, আক্রমণকারীরা দুই ভাগে ভাগ হয়ে গিয়ে দুইটি গ্রামে হামলা করে।

দুই গ্রাম ঘুরে এসে স্থানীয় মেয়র সংবাদসংস্থা এএফপি-কে জানিয়েছেন, তিচোমা বাঙ্গাউ গ্রামে ৭০ জন মারা গেছেন। অন্য গ্রামে মারা গেছেন ৩০ জনের বেশি। গুরুতর আহত ৭৫ জন।

ওই দুই গ্রামের যুবকরা আত্মরক্ষার জন্য নিজেরাই দল গঠন করেছিল এবং সম্প্রতি দুই জন বিদ্রোহীকে তারা পিটিয়ে মারে। তারই বদলা নিতে এই আক্রমণ বলে মনে করা হচ্ছে।

যে জায়গায় এই ঘটনা ঘটেছে, তা নাইজারের সঙ্গে মালি ও বুরকিনো ফাসোর সীমান্তের কাছে। এখনে আল কায়দা ও আইএসের সহযোগী বেশ কয়েকটা গোষ্ঠী সক্রিয়। নাইজারে সম্প্রতি সহিংস ঘটনা প্রচুর বেড়েছে। কয়েকশ মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

নির্বাচনের ফল

গত সপ্তাহেই নাইজারে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের জন্য ভোট হয়েছে। তার গণনা যখন চলছে, সেই সময় এই ভয়ঙ্কর ঘটনা ঘটল। ফলাফলে ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থী মোহামেড বাজাউম ৩৯ শতাংশের বেশি ভোটে এগিয়ে আছেন। বিরোধী প্রার্থী মাহামানে ওসমানে পেয়েছেন প্রায় ১৭ শতাংশ বোট।