বিক্রিত সন্তান ফিরিয়ে দেয়ার পর এবার সহায়তা দিলেন ডিসি

আরিফ উদ্দিন, গাইবান্ধা প্রতিনিধিঃ দারিদ্রের কারণে সন্তান বিক্রি করা গাইবান্ধা সদরের রুপার বাজারের সেই আঙ্গুর রাণী ও শাজাহান দম্পতি রোববার পেলেন জেলা প্রশাসকের মানবিক সহায়তা। জেলা প্রশাসক কার্যালয় চত্ত্বরে তাদের হাতে জেলা প্রশাসক মো. আবদুল মতিন তুলে দিলেন একটি ভ্যানগাড়ি, শিশুখাদ্যসহ অন্যান্য খাদ্যসামগ্রী।
জেলা প্রশাসক কার্যালয় সূত্র জানায়, গত ১৮ সেপ্টেম্বর গাইবান্ধার একটি ক্লিনিকে অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে সন্তান প্রসব করেন সদরের আঙ্গুর রাণী। ক্লিনিকের বিল হয় ১৬ হাজার টাকা। বিল পরিশোধ করতে না পেরে এবং ভবিষ্যতে লালন পালনের খরচ যোগাতে না পারার শঙ্কায় নবজাতককে ২০ হাজার টাকায় করেন বাবা-মা। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে জেলা প্রশাসনের দৃষ্টিগোচর হয়। জেলা প্রশাসক আব্দুল মতিন নিজে টাকা পরিশোধ করে নবজাতকটিকে ফিরিয়ে এনে তার মায়ের কোলে ফিরিয়ে দেন।
রোববার দুপুরে (৩ জানুয়ারী) জেলা প্রশাসক ওই দম্পতিকে দপ্তরে ডেকে এনে একটি ভ্যান, শিশুখাদ্যসহ অন্যান্য খাদ্যসামগ্রী তুলে দেন। এসময় জেলা প্রশাসক তাদের জন্য সবধরণের সাহায্যের আশ্বাস দেন। সহায়তা পেয়ে আঙ্গুর রানী বলেন, সন্তানকে মানুষ করতে পারব না, তাই বিক্রি করতে বাধ্য হয়েছিলাম। কয়েক রাত ঘুমাতে পারিনি। জেলা প্রশাসক আমার ভালবাসার ধন ফিরিয়ে দিয়েছেন।
জেলা প্রশাসক মো. আবদুল মতিন বলেন, এই পরিবারটি যাতে আর কোনো সমস্যায় না পড়ে সেদিকে লক্ষ্য রাখা হবে।