খাঁচা থেকে পালিয়েছে মেছোবাঘ, ফেঞ্চুগঞ্জের গঙ্গাপুরে আতঙ্ক

সিলেট প্রতিনিধি : দীর্ঘদিন থেকে সিলেটের ফেঞ্চুগঞ্জের গঙ্গাপুর ও আশপাশের কয়েকটি গ্রামে মেছোবাঘের উৎপাতে অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিল মানুষের জনজীবন। ফলে স্থানীয়রা মেছোবাঘকে বন্দী করতে ফাঁদ তৈরী করেন। ফাঁদে বন্দী হয় একটি মেছোবাঘ। খাঁচায় বন্দী বাঘটিকে গাড়িতে তুলার সময় বাঘটি পালিয়ে যায়।
স্থানীয়রা জানান, দীর্ঘদিন থেকে গঙ্গাপুর ও আশপাশের কয়েকটি গ্রামে মেছোবাঘের উৎপাতে অতিষ্ঠ সাধারন মানুষ। মেছোবাঘেরা ফিশারির বড় বড় মাছ খেয়ে ক্ষতিগ্রস্ত করে আসছে। মেছোবাঘের উৎপাত থেকে রক্ষা পেতে বাঘ ধরতে তারা ফাঁদ পাতেন। সেই ফাঁদে রবিবার রাতে একটি বড় মেছোবাঘ আটকা পড়ে। বাঘটি বন বিভাগে হস্তান্তরের জন্য ফেঞ্চুগঞ্জ ইউএনও এর সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি সিলেট থেকে বন কর্মকর্তা জয়নুল ইসলামকে ফেঞ্চুগঞ্জে পাঠান। এসময় খাঁচায় বন্দী বাঘটিকে গাড়িতে তুলার সময় বাঘটি পালিয়ে যায়। পরে আর বাঘটিকে পাওয়া যায়নি।
ফিশারি মালিক জানান, মেছোবাঘটি গাড়িতে তোলার সময় খুব হিংস্র রূপ নেয়। ভয় পেয়ে খাচায় ধরা লোকরা সরে গেলে বাঘটি ফাঁদ থেকে বেরিয়ে যায়। তাই বাঘটি হস্তান্তর করা যায়নি।
বন কর্মকর্তা জানান, মেছোবাঘটি হস্তান্তরের আগেই গাড়িতে তোলার সময় খুব হিংস্র রূপ নেয়। ভয় পেয়ে খাচায় ধরা লোকরা সরে গেলে বাঘটি ফাঁদ থেকে বেরিয়ে যায়।