ইরানের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার অধিকার কেড়ে নেয়া উচিত

বিদায়ী মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, ইরানের কোনও মাত্রায়ই ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার অধিকার থাকা উচিত নয়। তেহরান যখন তার ওপর থেকে মার্কিন নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না করলে আন্তর্জাতিক পরিদর্শকদেরকে দেশ থেকে বহিষ্কারের হুমকি দিয়েছে তখন পম্পেও একথা বললেন।

বিদায় নেওয়ার আগ মুহূর্তেও নিজের বাগাড়ম্বর অব্যাহত রেখে পম্পেও দাবি করেন, ইরান পরমাণু কর্মসূচির মাধ্যমে মধ্যপ্রাচ্যের নিরাপত্তাকে বিপদাপন্ন করে তুলেছে। সুতরাং তেহরানের ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করার অধিকার কেড়ে নেওয়া উচিত।

২০১৫ সালে ছয় জাতিগোষ্ঠীর সঙ্গে স্বাক্ষরিত পরমাণু সমঝোতা অনুযায়ী ইরান সর্বোচ্চ সাড়ে ৩ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করতে রাজি হয়েছিল। তখন পর্যন্ত তেহরান ২০ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করত।

কিন্তু ২০১৮ সালে আমেরিকা পরমাণু সমঝোতা থেকে বেরিয়ে গিয়ে তেহরানের ওপর কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করার পর ইরান ওই সমঝোতায় দেওয়া নিজের প্রতিশ্রুতি বাস্তবায়ন ক্রমান্বয়ে স্থগিত করে এবং গত সপ্তাহে আবার ২০ মাত্রায় ইউরেনিয়াম সমৃদ্ধ করতে শুরু করে।

রবিবার ইরানের সংসদের জাতীয় নিরাপত্তা ও পররাষ্ট্রনীতি বিষয়ক কমিশনের মুখপাত্র আবুলফজল আমুয়ি বলেছেন, আমেরিকা নিষেধাজ্ঞা প্রত্যাহার না করলে তার দেশ পরমাণু অস্ত্র বিস্তার রোধ চুক্তি বা এনপিটির সম্পূরক প্রটোকল থেকে বেরিয়ে যাবে। ইরান তা করলে জাতিসংঘের পরিদর্শকরা ইরানের পরমাণু স্থাপনাগুলো পরিদর্শন করতে পারবেন না এবং যেসব পরিদর্শক এখন ইরানে অবস্থান করছেন তাদেরকে এদেশ ছেড়ে চলে যেতে হবে।