দাদন ব্যবসায়ী টুলু ও তার পুত্রের বাড়ির দখলের অভিযোগে আদালতে মামলা দায়ের

জাতীয় রিক্সা ভ্যান শ্রমিকলীগ বগুড়া জেলা শাখার আহবায়ক ও পশ্চিম নারুলী এলাকার দাদন ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম টুলু ও তার পুত্র সোহেল রানার অব্যাহত হুমকি ধামকি ও বাড়ি দখল করার অভিযোগে বগুড়ায় আদালতে মামলা দায়ের করা হয়েছে। মঙ্গলবার জেলা বগুড়ার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত বগুড়া সদরে মামলাটি দায়ের করেন নারুলী পশ্চিম পাড়ার মৃত মোজাম প্রাং এর পুত্র মো. সহিদুল ইসলাম। মামলা নং হলো ৪৪ সি/২১ বগুড়া সদর। মামলা সুত্রে জানা যায়, জাতীয় রিক্্র্যা ভ্যান শ্রমিকলীগ বগুড়া জেলা শাখার আহবায়ক রফিকুল ইসলাম টুলু ও তার পুত্র সোহেল রানা একজন দাদন ব্যবসায়ী, অন্যায়কারী, পরধন লোভী, আইন অমান্যকারী ব্যক্তি। পক্ষান্তরে বাদি একজন সহজ সরল প্রকৃতির। বছর খানিক পুর্বে ব্যবসায়িক প্রয়োজনে বাদি এই দুইজনের কাছ থেকে ১লক্ষ ৬০ হাজার টাকা গ্রহন করেন । কিন্তু এই টাকা আদায়ের জন্য গত ৭/০১/২১ইং তারিখে সহিদুল ইসলাম চেলোপাড়া থেকে নারুলীতে তার নিজ বাড়ি ফেরার সময় আনুমানিক রাত ৯টার দিকে ঐ দাদন ব্যবসাীয়রা সহ অজ্ঞাত আরো ৩/৪জন সন্ত্রাসী প্রকৃতির লোক বাদির পথ আগলে ধরে। এবং টাকা আদায়ের জন্য তাদের হাতে থাকা দেশীয় অস্ত্র শস্ত্র দারা হুমকি ধামকি দেয় । একপর্যায়ে তাদের দাবিকৃত টাকা না দেওয়ায় দাদন ব্যবসায়ী রফিকুল ইসলাম টুলু ভয়ভীতি দেখিয়ে ১০০ টাকা মুল্যের ৬টি ফাঁকা স্ট্যাম্পে স্বাক্ষর করে নেয়। এরপর আসামীরা বাদির বাড়ির ইটের প্রাচীর ভেঙ্গে বাড়ির মধ্যে অনধিকার প্রবেশ করে এবং বাড়ির মধ্যে রক্ষিত ২ হাজার ইট বিক্রয় করে। মামলায় আরো উল্লেখ করা হয়েছে ঐ দাদন ব্যবসায়ী এলাকার লোকজনদেরকে বলে বেড়াচ্ছে বাদি তাদের কাছে থেকে ২ লক্ষ টাকা নিয়ে বসত বাড়ি তাদের নামে লিখে দিয়েছে। বাদি তার পরিবার পরিজন নিয়ে বাড়িতে প্রবেশ করতে গেলে তাদের প্রাণ নাশের হুমকি দেওয়া হচ্ছে বলে মামলায় উল্লেখ করা হয়েছে। এই ঘটনাটি নিয়ে বাদি ইতিপুর্বে বগুড়া সদর থানায় লিখিত অভিযোগ ও বগুড়া প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। মামলাটির তদন্তভার সিআইডির উপর দেয়া হযেছে।