বগুড়া র‌্যাবের সাড়াশি অভিযানে ৭৫০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেটসহ ০১ জন মাদক ব্যবসায়ী গ্রেফতার

রেস ব্রিফিং: র‌্যাব তার প্রতিষ্ঠা লগ্ন হতেই খুন, অপহরণ, জঙ্গীদমন, ছিনতাই, চাঁদাবাজ, চুরি, অবৈধ মাদক ব্যবসা ও চোরাচালানসহ বিভিন্ন সন্ত্রাসী কার্যক্রম বন্ধ করাসহ দূস্কৃতিকারীদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনা করে অপরাধ নির্মূলে উল্লেখযোগ্য ভূমিকা পালন করে আসছে এবং র‌্যাব-১২ এর সিপিএসসি, বগুড়া ক্যাম্পের আওতাধীন এলাকাগুলিতে ব্যাপকভাবে সফলতা অর্জন করেছে। গোয়েন্দা নজরদারী বৃদ্ধিসহ সার্বক্ষনিক অভিযান পরিচালনা করে র‌্যাব ইতিমধ্যে জনগনের আস্থা অর্জনে সক্ষম হয়েছে।

র‌্যাব-১২, বগুড়া ক্যাম্পের একটি আভিযানিক দল অদ্য ২৮ ফেব্রæয়ারি ২০২১ ইং তারিখ সকাল ০৯.০০ ঘটিকার সময় বগুড়া জেলার সদর থানাধীন পুরান বগুড়া হিন্দুপাড়াস্থ্য শাহাদত হোসেন প্রোঃ সাগর ডেকোরেটরের দোতলা পাকা বাড়ীর উত্তর বøকের পশ্চিম দুয়ারী পূর্ব ঘরের নীচতলায় অভিযান পরিচালনা করে অভিনব কায়দায় ইয়াবা ব্যবসায়ী মোঃ ইসমাইল হোসেন (৪২), পিতা- মৃত শামসুল হক, অ/চ-সাং-বাড়ী নং-ই/৭ চক লোকমান, থানা-বগুড়া সদর ও জেলা-বগুড়া, স্থায়ী ঠিকানাঃ সাং-খাগড়াবন, থানা-পার্বতীপুর, জেলা-দিনাজপুর’কে মোট= ৭৫০০ (সাত হাজার পাঁচশত) পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ০২টি মোবাইল ০৬ টি সীমকার্ড এবং ২০০০/- (দুই হাজার) টাকাসহ গ্রেফতার করে। উল্লেখ্য অদ্য বগুড়া জেলায় পৌর নির্বাচন থাকায় সকল আইন শৃংখলা রক্ষাকারী বাহিনী ব্যস্ত থাকার সুযোগে সে নিরবে মাদক ব্যবসা করে যাবে বলে মনে করেছে কিন্তু তার সকল প্রচেষ্টা ব্যার্থ করে দিয়ে র‌্যাব-১২, বগুড়া তাদের গোয়েন্দা নজরদারী তথা আভিযানিক সাফল্যের আর একটি উজ্জল দৃষ্টান্ত। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ী দীর্ঘদিন যাবৎ মাদকদ্রব্য ইয়াবা ট্যাবলেট এর বড় বড় চালান সমগ্র বাংলাদেশে সরবরাহ করে আসছিল মর্মে জানা যায়। গ্রেফতারকৃত মাদক ব্যবসায়ীর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য বগুড়া জেলার সদর থানায় হস্তান্তরের কার্যক্রম প্রক্রিয়াধীন।

র‌্যাবের এ ধরনের মাদক বিরোধী আভিযানিক কার্যক্রম চলমান থাকবে এবং ভবিষ্যতে আরো জোরদার করা হবে। আইন শৃংখলা বাহিনীর এ ধরনের তৎপরতা বাংলাদেশকে একটি অপরাধমুক্ত দেশ হিসাবে গড়ে তুলতে পারবে বলে আমরা দৃঢ়ভাবে বিশ্বাস করি।

সর্বশেষ সংবাদ