ফ্রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্টের তিন বছরের কারাদণ্ড

রান্সের সাবেক প্রেসিডেন্ট নিকোলাস সারকোজিকে দুর্নীতির দায়ে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন দেশটির আদালত। সোমবার (০১ মার্চ) এ রায় ঘোষণা করা হয়।

একইসঙ্গে দেশটির ওই প্রেসিডেন্টের সাবেক দুই আইনজীবীকেও দেওয়া হয়েছে তিন বছরের সাজা। খবর বিবিসি।

নিকোলাস সারকোজিকে বাড়িতে বন্দি করে রাখা হবে। সেজন্য তাকে ইলেকট্রনিক ট্যাগও দিতে হবে বলে রায় ঘোষণার সময় বলেন আদালত।

এদিকে, নিকোলাস বলেছেন তিনি ওই রায়ের বিরুদ্ধে উচ্চ আদালতে আপিল করবেন।

উল্লেখ্য, ফ্রান্সের সাবেক এই প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে দুর্নীতি, লিবিয়ায় রাষ্ট্রীয় কোষাগার থেকে উৎকোচ গ্রহণ ও তা গোপন রাখার এবং ২০১২ সালের নির্বাচনী প্রচারাভিযনের কাজে অবৈধভাবে অর্জিত সম্পদ ব্যবহারের অভিযোগ আনা হয়।

এছাড়া ২০০৭ সালের নির্বাচনী প্রচারের কাজে লিবিয়ার সাবেক শাসক মুয়াম্মার গাদ্দাফির কাছ থেকে পাঁচ কোটি ইউরো ঘুষ গ্রহণ করেছিলেন বলে অভিযোগ রয়েছে নিকোলাসের বিরুদ্ধে। ২০১১ সালে গণ অভ্যুত্থানে গাদ্দাফি ক্ষমতাচ্যুত ও নিহত হওয়ার পর এই অভিযোগ উত্থাপন করেন গাদ্দাফির পুত্র সাইফুল ইসলাম গাদ্দাফি।

সম্প্রতি বিচারককে উৎকোচ প্রদানের মাধ্যমে আদালতের রায়কে নিজের অনুকূলে আনার প্রচেষ্টার দায়েও অভিযুক্ত হন তিনি।

ওই রায়ের ফলে দ্বিতীয় বিশ্বযুদ্ধের পর ফ্রান্সের ইতিহাসে প্রথম কোনও ঘটনা যেখানে একজন সাবেক প্রেসিডেন্ট দুর্নীতির অভিযোগে কারাদণ্ড ভোগ করতে যাচ্ছেন।

 

সর্বশেষ সংবাদ