থামছে না সড়কে হত্যা! কালীগঞ্জে ২০ দিনে নিহত ১৬!

স্টাফ রিপোর্টার, ঝিনাইদহ-ঝিনাইদহের কালীগঞ্জ উপজেলায় ২০ দিনে পৃথক সড়ক দুর্ঘটনায় সড়কে প্রান হারিয়েছে ১৬ জন। নিহতদের মধ্যে ৬ জন শিক্ষার্থী ছিল। দুর্ঘটনায় আহত হয়েছে অন্তত ৪০ জন। হঠাৎ করেই কালীগঞ্জ উপজেলায় সড়ক দুর্ঘটনা বেড়েই চলেছে।
গত ১০ ফেব্রুয়ারি কালীগঞ্জ উপজেলার বারোবাজার এলাকায় তেল পাম্পের সামনে যাত্রীবাহী বাস উল্টে ঘটনাস্থলে ১২ জন মারা যান। নিহত ১২ জনের মধ্যে ছিল ৬ জন মাস্টর্সের শিক্ষার্থী। তারা সেদিন যশোরে পরীক্ষা দিয়ে বাড়িতে ফিরছিলেন। ১২ ফেব্রয়ারি ভোরে কালীগঞ্জ শহরের হক চিড়া মিল এলাকায় ট্রাকের হেলপার দিয়ে চালানোয় চায়ের দোকান গুড়িয়ে দেয় দ্রুতগামী ট্রাক। এ সময় চায়ের দোকানে বসা ৪ পথচারী গুরুত্বর আহত হন। এরপর গত ২১ ফেব্রুয়ারি পিরোজপুর এলাকায় দুই ট্রাকের মুখোমুখি সংঘর্ষে দুই চালক আহত হন। ফেব্রুয়ারি মাসের ২৬ তারিখে কালীগঞ্জ-কোটচাঁদপুর সড়কের পাতবিলা এলাকার একটি তেল পাম্পের সামনে বাস ওভারটেক করতে গিয়ে ৩ মোটর সাইকেলের সংঘর্ষে তিন যুবক নিহত হয়েছেন। এ সময় আহত হয়েছেন আরও দুইজন। ১ মার্চ উপজেলার নরেন্দ্রপুর এলাকায় শ্যালো ইঞ্জিন চালিত অবৈধ যান লাটা হাম্বার চালানো শিখতে গিয়ে জিলহাস হোসেন নামে ১০ম শ্রেনীর এক ছাত্র হয়।