গৌরীপুর বাস বিস্ফোরণে শিশুসহ নিহত-২ আহত ২২ জন

কুমিল্লার দাউদকান্দি উপজেলার গৌরিপুরে মোড়ে ঢাকা-চট্টগ্রাম মহাসড়কে ১১ মার্চ বৃহস্পতিবার বিকাল ৫.৩০ মিনিটে মতলব এক্সপ্রেস যাত্রীবাহী চলন্ত বাসে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে অগ্নিকান্ডে দগ্ধ হয়ে শিশুসহ ২ জন নিহত ও আহত ২২জন। মতলব এক্সপ্রেস পরিবহন ঢাকা-জ-১৪-০১৪৪ যাত্রীবাহী বাসটি ঢাকা থেকে এসে গৌরীপুর মোড়ে পেন্নাই ইদগাহ ইউ টান নিয়ে হাসপাতালের সামনে আসার পথে বাসটির ভিতরে বিকট শব্দ হয়,মুহুর্তে পুরো বাসে আগুন ধরে যায়।

ঘটনাস্থল থেকে দাউদকান্দি ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা ২জনে মরদেহ উদ্ধার করেন। তৎক্ষণাৎ খবর পেয়ে দাউদকান্দি ফায়ার সার্ভিস, দাউদকান্দি মডেল থানা,দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশ, গৌরীপুর ফাঁড়ি পুলিশ, সহ সাধারণ জনগণ উদ্ধার অভিযানে নেমে পড়লে আশে-পাশে গাড়ি দোকান গুলো রক্ষা পায়। অগ্নিদগ্ধ হয়ে নিহত শিশু শাফিন (৫) পিতা.সাইফুল ইসলাম, গ্রাম.বনুয়াকান্দি, ও রফিকুল ইসলাম (৭০) পিতা.আহাম্মেদ উল্লাহ, গ্রাম, তিনপাড়া,উভয় উপজেলাঃ-দাউদকান্দি, কুমিল্লা। দাউদকান্দি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ৩ জনকে ভর্তি করা হয়,ঢাকা মেডিকেল কলেজের শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে গুরুতর অবস্থায় ১৪ জন যাত্রীকে রেফার করা হয় এবং প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ৫ জনকে ছেড়ে দেওয়া হয়।

এদিকে আগুনের ঘটনায় ঘন্টাব্যাপি উভয় পাশে যান চলাচল বন্ধ থাকায় যানজট সৃষ্টি হলে,পরে দাউদকান্দি হাইওয়ে পুলিশ যান চলাচল স্বাভাবিক করেন। স্বজনদের আহাজারিতে গৌরীপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আকাশ-বাতাস ভারী হয়ে এ যেন এক কান্নার নগরে পরিনত হয়।

কুমিল্লা জেলা প্রশাসকের পক্ষে দাউদকান্দি উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোঃ কামরুল ইসলাম নিহত প্রত্যাক পরিবারকে নগদ ২০ হাজার টাকা করে প্রদান করেন। এবং আহত প্রতি পরিবারকে নগদ ১০ হাজার টাকা করে প্রদান করেন, সর্বমোট ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকা প্রদান করেন।

সর্বশেষ সংবাদ