অনিয়ম ও দুর্নীতিকে রুখে দিয়ে নি:স্বার্থভাবে কাজ করতে চাই-প্রধানমন্ত্রীর স্পীচ রাইটার নজরুল

সঞ্জু রায়, স্টাফ রিপোর্টার: প্রধানমন্ত্রীর স্পীচ রাইটার এবং মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ শিক্ষা ট্রাস্ট বগুড়ার নতুন চমক নব-যোগদানকৃত নির্বাহী পরিচালক মো: নজরুল ইসলাম (সচিব) বলেছেন, মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানে তাদের স্বপ্নের প্রতিষ্ঠান বগুড়ার প্রতিটি উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজে ইতিবাচক পরিবর্তন আনতে সকল অনিয়ম ও দুর্নীতি কে রুখে দিয়ে নি:স্বার্থভাবে কাজ করতে চাই তিনি। তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর অনুমতিক্রমে তিনি এই পদে আসীন হয়েছেন, তাই সকলকে সাথে নিয়ে অগ্রাধিকার ভিত্তিতে প্রতিষ্ঠানের স্বার্থে ইতিবাচক কার্যক্রম গ্রহণ করা হবে যাতে মাঝপথে থমকে যাওয়া এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান আবারো ঘুরে দাঁড়াতে পারে।
বগুড়ায় শুক্রবার দুপুরে শহরের জেলা পরিষদ মিলনায়তনে মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ শিক্ষা ট্রাস্ট বগুড়ায় নির্বাহী পরিচালক পদে প্রধানমন্ত্রীর স্পীচ রাইটার (সচিব) মো: নজরুল ইসলাম যোগদান করায় আয়োজিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি উপরোক্ত কথাগুলি বলেন। অনুষ্ঠানে নজরুল ইসলাম আরো বলেন, বঙ্গবন্ধু কণ্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বর্তমান বাংলাদেশের তৃণমূল থেকে শুরু করে সকল স্থানে সমভাবে দৃশ্যমান উন্নয়ন সাধিত হচ্ছে। দেশের এই অগ্রযাত্রা কে কোন অপশক্তি যেন ব্যাহত করতে না পারে সেই লক্ষ্যে সকলকে সচেতন থাকতে হবে। অনুষ্ঠানে উদ্বোধনী বক্তব্য প্রদান করেন প্রতিষ্ঠানের বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর চেয়ারম্যান বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ বগুড়া জেলা শাখার সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ¦ মো: মজিবর রহমান মজনু। এছাড়াও সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (শিক্ষা ও আইসিটি) মাসুম আলী বেগ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) আলী হায়দার চৌধুরী, বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগ এর সহ-সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা টি.এম মুসা পেস্তা, বীর মুক্তিযোদ্ধা এস.এম রফিকুল ইসলাম লাল, বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক এবং মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ শিক্ষা ট্রাস্ট বোর্ডের ভাইস চেয়ারম্যান এ্যাড. জাকির হোসেন নবাব এবং বোর্ড অব ট্রাস্টিজ এর সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসান মো: আশরাফুদৌল্লা। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে এসময় উপস্থিত ছিলেন প্রধানমন্ত্রীর স্পীচ রাইটার (সচিব) মো: নজরুল ইসলাম এর সহধর্মিণী ড. জেসমিন আরা সুলতানা, বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের দপ্তর সম্পাদক আল-রাজি জুয়েল, মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ দুপচাঁচিয়া’র উপদেষ্টা সারোয়ার খানসহ বগুড়ার ১২টি উপজেলার মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ এর ম্যানেজিং কমিটির নেতৃবৃন্দ, অধ্যক্ষগণ, রাজনৈতিক অঙ্গণের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতৃবৃন্দ প্রমুখ। আলোচনা সভার পূর্বে ট্রাস্টের পক্ষে প্রধান অতিথি নজরুল ইসলাম কে ক্রেস্ট, সম্মাননা পত্র, ফুল দিয়ে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়।
উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন ধরেই নানা বিতর্ক এবং প্রতিবন্ধকতায় মধ্য দিয়ে প্রায় বিনা বেতনেই সেচ্ছাশ্রমের ভিত্তিতে মুক্তিযোদ্ধা এমন গর্বিত নামে গড়া এই প্রতিষ্ঠানগুলোতে পাঠদান দিয়ে আসছে শিক্ষকমন্ডলী। ম্যানেজিং কমিটি নিয়ে টানাপোড়ণ, অব্যবস্থাপনা তথা নানা চড়াই-উতরাই কে কাটিয়ে বগুড়া জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মজিবর রহমান মজনুর নেতৃত্বে মুক্তিযোদ্ধা টেকনিক্যাল স্কুল এন্ড কলেজ শিক্ষা ট্রাস্ট বগুড়ার নির্বাহী পরিচালক পদে প্রধানমন্ত্রীর স্পীচ রাইটার (সচিব) মো: নজরুল ইসলাম এর যোগদানে সকলের মুখে এক অনাবিল আনন্দ ফুঁটে উঠেছে তাই সকলেই দেখতে শুরু করেছে ইতিবাচক পরিবর্তনের মাধ্যমে বিজয়ের জয়যাত্রার সুদিন।

 

সর্বশেষ সংবাদ