নন্দীগ্রামে মাছের সাথে শত্রুতা

নন্দীগ্রাম (বগুড়া) প্রতিনিধিঃ বগুড়ার নন্দীগ্রামে পুকুরে গ্যাস ট্যাবলেট প্রয়োগে আনুমানিক ১২ লাখ টাকার মাছ নিধন হয়েছে। জানা গেছে, উপজেলার ভাটগ্রাম ইউনিয়নের ১নং ওয়ার্ডের সদস্য ও ভূষ্কুর গ্রামের বিশিষ্ট মাছ চাষী আব্দুল হাকিম হাটকড়ই মৌজার একটি বিশাল আয়তনের পুকুর লিজ নিয়ে মাছ চাষ করে আসছে। ওই পুকুরে রুই, কাতলা, মৃগেল ও পাবদাসহ বিভিন্ন জাতের মাছ চাষ করে। ১৪ মার্চ দিবাগত রাতে শত্রুতামূলকভাবে কেবা কাহারা ওই পুকুরে গ্যাস ট্যাবলেট প্রয়োগ করে। এতে তার আনুমানিক ১২ লাখ টাকার মাছ মরে ভেসে উঠে। এ খবর পেয়ে ১৫ মার্চ সকালে পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন। মাছ চাষী আব্দুল হাকিম জানিয়েছেন, আমার জানামতে আমি কখনো কারো ক্ষতি করি নাই। এরপরেও কেবা কাহারা মাছের সাথে শত্রুতা শুরু করছে। এই পুকুরে শত্রুতামূলকভাবে গ্যাস ট্যাবলেট প্রয়োগ করে আমার আনুমানিক ১২ লাখ টাকার মাছ ক্ষতি সাধন করে। এরপূর্বে আমার নিজ গ্রামে নিজস্ব পুকুরে কেবা কাহারা গ্যাস ট্যাবলেট প্রয়োগ করে আনুমানিক ৮ লাখ টাকার মাছ নিধন করে দেয়। সে বিষয়ে আমি থানায় মামলা দায়ের করেছি। একটি চক্র আমার ক্ষতি করার জন্য এ কাজ বারবার করে আসছে। ঘটনায় জড়িতদের আইনের আওতায় এনে শাস্তির দাবি জানাচ্ছি।

 

 

সর্বশেষ সংবাদ