তানোর উপজেলা এলজিইডির প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ

সারোয়ার হোসেন, তানোরঃ রাজশাহীর তানোর উপজেলা এলজিইডি অফিসের সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুনের বিরুদ্ধে চলমান রাস্তার পূর্ণ সংস্করণ কাজ নিয়ে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতির অভিযোগ উঠেছে। এমনকি রাস্তার কাজ পরিদর্শনে ঠিকাদারের বিলাশ বহুল গাড়িতে চড়ে চলাফেরা করে কাজ দেখভাল করার অভিযোগও উঠেছে প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুনের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, উপজেলার ৮৫ কিলোমিটার পাকা রাস্তা সংস্কার করার জন্য প্রায় ৮০কোটি টাকা বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। কিন্তু ঠিকাদাররা রাস্তা সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতি করলেও নীরব ভূমিকা রেখে প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন ঠিকাদারের গাড়িতে চড়ে রাস্তা পরিদর্শন করে রাস্তা দেখভাল করছেন তিনি। এতে একজন প্রকৌশলীর ঠিকাদারের গাড়িতে চলাফেরা করা দেখে রাস্তা সংস্কার কাজের বিষয়ে ভাবিয়ে তুলেছে জনসাধারণকে। শুধু তাই নয় প্রকৌশলী নিজেকে বিভিন্ন সময় এমপি মন্ত্রীদের আত্মীয় বন্ধু পরিচয় দিয়ে ঠিকাদারদের সাথে পার্সেন্টের হিসেব নিকাশ করায় সেই সুযোগ কাজে লাগিয়ে ঠিকাদারও রাস্তা সংস্কার কাজে সিডিউল কাছে না রেখে রাস্তা সংস্কার কাজে ব্যাপক অনিয়ম দূর্নীতি করার সুযোগ কাজে লাগাচ্ছেন ঠিকাদাররা। এতে করে রাস্তা সংস্কার কাজের বিষয়ে তথ্য সংগ্রহ করতে রাস্তার কাজে গিয়ে প্রতিনিয়ত তথ্য না দিয়ে সাংবাদিকের হয়রানি করা হচ্ছে। এমনকি রাস্তা সংস্কার কাজ ভিডিও বা ছবি পর্যন্ত সাংবাদিকের তুলতে না দিয়ে উল্টো সাংবাদিকের ক্যামেরা ভাংচুর করাসহ সাংবাদিকের লাঞ্ছিত করা হচ্ছে। ফলে রাস্তা সংস্কার কাজে অনিয়ম দূর্নীতি করা হলেও সাংবাদিকের কোন তথ্য না দিয়ে রাস্তার নিউজ করলে উল্টো সাংবাদিকের হাত পা ভেঙ্গে ফেলা সহ বিভিন্ন হুমকি দেয়া হচ্ছে ঠিকাদারকে দিয়ে। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক, উপজেলা এলজিইডি অফিসের এক কর্মকর্তা বলেন, প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুন আসার পর থেকে অফিসের স্টাফদের সাথে বিভিন্ন সময় দুব্যবহার করাসহ স্থানীয় ঠিকাদারদের সাথে মনোমালিন্য হলেই তাদের সিডিউল গায়েব করে তাদের সাথে অক্যর্থ ভাষায় গালিগালাজ করা হয়। বিষয়টি নিয়ে উপজেলা এলজিইডি অফিসের সহকারী প্রকৌশলী আব্দুল্লাহ আল মামুনের সাথে কথা বলা হলে তিনি বলেন, রাস্তা সংস্কার কাজের বিষয়ে কোন তথ্য দেয়া যাবেনা, রাস্তা সংস্কার কাজের তথ্য সাংবাদিকদের দিতে স্থানীয় সংসদ সদস্যের নিষেধ আছে বলে জানান তিনি।