কৃষক সমিতির সাবেক সভাপতি মোর্শেদ আলীর মৃত্যুতে কৃষক সমিতির বগুড়ার শোক

স্টাফ রিপোর্টার:বাংলাদেশ কৃষক সমিতির সাবেক সভাপতি, ছাত্র ইউনিয়নের সাবেক কেন্দ্রীয় নেতা, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু)’র ১৯৬৬-৬৭ মেয়াদে সাধারণ সম্পাদক, বাংলাদেশের কমিউনিস্ট পার্টি (সিপিবি)’র কন্ট্রোল কমিশনের সদস্য, সাবেক প্রেসিডিয়াম সদস্য, বাংলাদেশ ট্রেড ইউনিয়ন কেন্দ্র (টিইউসি)’র অন্যতম প্রতিষ্ঠাতা, বীর মুক্তিযোদ্ধা কমরেড মোর্শেদ আলী গতকাল বুধবার সকালে বঙ্গবন্ধু মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে মৃত্যুবরণ করেন। তিনি মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ জনিত কারণে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় চিকিৎসাধীন ছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৭৬ বছর।তার মৃত্যুতে শোকসন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি জানিয়েছেন বাংলাদেশ কৃষক সমিতি বগুড়া জেলা কমিটির সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সন্তোষ কুমার পাল, সহ সভাপতি মোঃ মকবুল হোসেন, সাধারণ সম্পাদক হাসান আলী শেখ, সহ- সাধারণ সম্পাদক হাসিবুল হাসান ড্রেক, সাংগঠনিক সম্পাদক নাদিম মাহমুদ,কোষাধ্যক্ষ সাম্য সাগর সাহা,সদস্য এ্যাডভোকেট নারায়ণ চাকী প্রমুখ।কমরেড মোর্শেদ আলী কৈশোরেই ছাত্র আন্দোলনের মধ্য দিয়ে কমিউনিস্ট রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত হয়েছেন। তার সুদীর্ঘ রাজনৈতিক জীবনে তিনি ১৯৬৬ সালের ৬ দফা, ’৬৯ সালের গণঅভ্যুত্থান, ’৭১-এর মহান মুক্তিযুদ্ধ, স্বৈরাচার এরশাদবিরোধী আন্দোলন, শ্রমিক ও কৃষক আন্দোলনে অংশ নিয়েছেন ও তা সংগঠিত করেছেন। শ্রমিক ও কৃষক আন্দোলনে তার ভূমিকা অগ্রগণ্য। মুক্তিযুদ্ধের পর থেকে ১৯৯৯ সাল পর্যন্ত তিনি ঢাকা মহানগরে কমিউনিস্ট পার্টির মুখ্য নেতা হিসেবে পার্টি ও গণসংগঠন বিস্তারে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখেন।অপর দিকে তার মৃত্যুতে শোকসন্তোপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানিয়ে বিবৃতি জানিয়েছেন বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন বগুড়া জেলা সংসদের সভাপতি মোঃ সাদ্দাম হোসেন,সহ-সভাপতি ফাইন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক সোহানুর রহমান সোহান, সহ সাধারন সম্পাদক সাগর পারভেজ , সাংগঠনিক সম্পাদক মোঃ ছাব্বির আহম্মেদ, ক্রিড়া সম্পাদক তারেক রহমান , সাংস্কৃতিক সম্পাদক আব্দুল হামিদ সুজন , সমাজ কল্যাণ সম্পাদক পবিত্র কুমার মাহাতো , কোষাধ্যক্ষ বায়েজিদ রহমান, শিক্ষা ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক নাইম ইসলাম, দপ্তর সম্পাদক নিয়ামুল ইসলাম আকিব, স্কুল ছাত্র বিষয়ক সম্পাদক সোহান কাদের, প্রচার ও প্রকাশনা বিষয়ক সম্পাদক সুজয় কুমার পাল, সদস্য মেহেদী হাসান, অজয় রায়, সরকারি আজিজুল হক কলেজ সংসদের সভাপতি আরমানুর রশীদ আকাশ, সরকারি শাহ সুলতান কলেজ সংসদের সাধারণ সম্পাদক আলমগীর হোসেন, পলিটেকনিক শাখার আহবায়ক আব্দুল মজিদ, জয়ন্ত কুমার অভি, সাতমাথা শাখার যুগ্ন আহবায়ক সিয়াম হোসেন, সারিয়াকান্দি শাখার সভাপতি ফাইন মিয়া, সাধারণ সম্পাদক সাম্য সাগর সাহা, কাহালু উপজেলা শাখার আহবায়ক মহেন্দ্র চন্দ্র, যুগ্ন আহবায়ক জিহাদ, ধুনট শাখার আহবায়ক ফজলুর রহমান, সাংস্কৃতিক ইউনিয়ন এর যুগ্ন আহবায়ক বোরহান শরিফ, সঙ্গিতা সরকার, মুনিরা, মালঞ্চা ইউনিয়ন শাখার আহ্বায়ক সিহাব, যুগ্ন আহ্বায়ক ইমদাদুল, সাখাওয়াত, কাহালু সদর ইউনিয়ন শাখার আহ্বায়ক মিঠুন চন্দ্র, যুগ্ম আহ্বায়ক পবিত্র চন্দ্র, পলাশ চন্দ্র, ছাত্রনেতা জয় ভৌমিক, নাফিস ইসলাম, প্রান্ত সহ সকল ইউনিটের নেতৃবৃন্দ।